অসহায় পরিবারের পাশে মিরপুর ক্লাব

প্রকাশিতঃ ৩:৩১ অপরাহ্ণ, শনি, ৪ এপ্রিল ২০

ইসমাম হোসেন, ঢাকা :

করোনা থেকে বাচঁতে লকডাউনে গৃহবন্দী আজ সারা বাংলাদেশ। সামর্থ্যবানরা তাদের প্রয়োজনীয় খাদ্য মজুদি করতে পারলেও অন্ন জোগানে ব্যর্থ আজ হাজারো দুরস্ত মানুষ। দিন আনে দিন খায় এ সকল অসহায় দরিদ্র খেটে খাওয়া মানুষের পাশে দাড়িয়েছেন মিরপুর ক্লাবের সদস্যরা।

“মিশন সেভ বাংলাদেশ” এর সহযোগিতায় আজকে মিরপুর ক্লাবের সদস্যরা ‘ফুড ব্যাগ’ নাম দিয়ে বিপাকে পড়া অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন। তারা ৬০০ কেজি চাল, ১২০ কেজি আলু, ৬০ লিটার তেল, ৬০ কেজি ডালসহ অন্যান্য নিত্য প্রয়োজনীয় কিছু পণ্য বিতরন করেন রুপনগর শিয়ালবাড়ী ও মিরপুর ২ এর বিভিন্ন এলাকার ৬০জন ক্ষতিগ্রস্ত ও নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে।

এসময় মিরপুর ক্লাবের সদস্যরা বলেন- “আমাদের এ কার্যক্রম চলবেই ইন-শা-আল্লাহ। বিপদে মানুষ মানুষের পাশে দাঁড়াবে এটাই তো স্বাভাবিক। আসুন আমরা সমবেত হয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াই।

এসময় উপস্থিত ঢাকা মিরর২৪ ডটকম এর নির্বাহী সম্পাদক মোহাম্মদ শাহ আলম বলেন, বর্তমানে বিশ্বে যে মহামারি অবস্থা চলছে তা মোকাবেলা করতে হলে মনে প্রাণে সকলকে এক হতে হবে। আজ বাংলাদেশে ২৫ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে তাদের পরিবারের কাছে ফিরে যেতে পেরেছে। এ সংখ্যা আরও বাড়বে যদি আমরা সচেতন হই। করোনা থেকে রক্ষার একমাত্র উপায় আমাদের সচেতনতা, ঐক্যবদ্ধতা, আমাদের মনুষ্যত্ব এবং নিজ নিজ ধর্ম পালন।

এই চরম বিপদকে সরকারের একার পক্ষে মোকাবিলা করা সম্ভব নয়। দেশের নাগরিক হিসেবে আমাদের সকলের উচিত নিজ নিজ অবস্থান থেকে সাহায্য করা। আমরা যে যা পারি তাই দিয়ে আসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াতে চেষ্টা করবো। সবাই নিজ নিজ গৃহে আবস্থান করুন এবং সচেতনতা অবলম্বন করুন।

ফুড ব্যাগ বিতরনের সময় উপস্থিত ছিলেন- এস এম মাহবুব আলম; প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি মিরপুর পেশাদার ও উদ্যোক্তা ক্লাব লিমিটেড, আবু মোহাম্মদ শোয়েব; সহ-সভাপতি মিরপুর পেশাদার ও উদ্যোক্তা ক্লাব লিমিটেড, মিরপুর পেশাদার ও উদ্যোক্তা ক্লাব লিমিটেড এর সদস্য- এল এম গোলাম মোহাম্মদ ফারুকী, লুতফর রহমান, ইফতেখার রহমান ও আব্দুর রহমান খান জেহাদসহ আরো অনেকে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ