আইনি লড়াই ছাড়া খালেদা জিয়াকে মুক্ত করা সম্ভব নয়: নানক

প্রকাশিতঃ ৮:০৪ অপরাহ্ণ, শুক্র, ৬ ডিসেম্বর ১৯

নিউজ ডেস্ক: বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিনের শুনানিকে কেন্দ্র করে উচ্চ আদালতে দলটির আইনজীবীরা যে হট্টগোলের সমালোচনা করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক তার দলের নেতাদের উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘যতই গুতাগুতি করেন, যতই আবোল-তাবোল বলেন, প্রধান বিচারপতির এজলাসে গিয়ে হট্টগোল করেন আর ঢাকা শহরে গাড়ি ভাঙচুর করেন, আইনি লড়াই ছাড়া খালেদা জিয়াকে কারাগার থেকে মুক্ত করা সম্ভব নয়।

শুক্রবার বিকালে ঠাকুরগাঁও জেলা পরিষদ অডিটোরিয়ামে (বিডি হলরুমে) জেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব বলেন।

নানক বলেন, ‘বিএনপির দুই কান কাটা। যার এক কান কাটা সে চলে রাস্তার একধার দিয়ে। আর যার দুই কান কাটা সে লজ্জা শরমের মাথা খেয়ে চলে রাস্তার মধ্যে দিয়ে। বিএনপি প্রধান বেগম খালেদা জিয়া গ্রেপ্তার হন দুর্নীতির দায়ে। তিনি আইনি সব লড়াই করার পরও প্রমাণ করতে পারেননি তিনি দুর্নীতি করেননি। সেই কারণেই দুর্নীতি মামলায় তার ১৭ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে।

দলের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, ‘আওয়ামী লীগের ইউনিয়ন কমিটি হয়েছে কি না তা জানি না। যদি তা হয়ে থাকে সেই কমিটিতে যদি কোনো অনুপ্রবেশকারী ঢুকে থাকে তাকে ঝেটিয়ে বের করে দিতে হবে। কারণ আন্দোলন সংগ্রাম করবে একজন আর দলের মধ্যে জায়গা করে নেবে আরেকজন এটা হতে পারে না।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দবিরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এসময় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ও ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সাংসদ রমেশ চন্দ্র সেন, সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, রংপুর বিভাগীয় সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, ঠাকুরগাঁও-পঞ্চগড়-দিনাজপুর সংরক্ষিত আসনের এমপি জাকিয়া তাবাসসুম জুঁই প্রমুখ।

এর আগে বেলুন ও পায়রা উড়িয়ে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন অতিথিরা। পরে সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুহা. সাদেক কুরাইশীকে সভাপতি ও দীপক কুমার রায়কে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে ঘোষণা দেন জাহাঙ্গীর কবির নানক।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ