আমরা আক্রান্ত হলে দায় নিবে কে..?

প্রকাশিতঃ ৭:২২ অপরাহ্ণ, শনি, ১১ এপ্রিল ২০

রাজ আহমেদ, চুয়াডাঙ্গা : গতিরোধ করে স্প্রে ও হাত ধোয়ানোর কারনে আংশিক লকডাউন কে নিষিদ্ধ করলো চুয়াডাঙ্গা সদর পুলিশ।
যেখানে অপরাধ আমাদের শুধুমাত্র গতিরোধ, ভবঘুরেদের নিরুৎসাহিত করা..? আমরা আক্রান্ত হলে দায় নিবে কে..?

  

কারো পথে যাতায়াতে বাধা না দিয়ে সবাইকে যেতে দেওয়ার পরও পুলিশ বাস সরিয়ে লকডাউন বন্ধ করার নির্দেশ দিয়েছে। সাথে ও বলল এই নির্দেশনা দিয়েছে কে?

আমাদের এলাকার কোন লোক বলতে পারবে না আমরা তাদের বাধা দিয়েছি আমাদের গ্রামের উপর দিয়ে যাওয়ার সময় আমরা শুধু তাদেরকে দাঁড় করিয়ে স্প্রে করেছি হাত ধোয়ার জন্য অনুরোধ করেছি তারা সেটিকে সাধুবাদ জানিয়েছে।

প্রশাসন আমাদেরকে সেটি করতে দিল না বলল এই নির্দেশনা আপনাদের দেয়া হয়নি। কথা আমার গ্রামে বা আমি যদি আক্রান্ত হয় সে দায়ভার কে নেবে প্রশাসন? বাংলাদেশের প্রতিটি জেলার গ্রামগুলোতে লকডাউন কে যেখানে সাধুবাদ জানানো হচ্ছে সেখানে আমাদেরকে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে। সত্যই বেদনাদায়ক।

কারণ অন্য জেলার গ্রামগুলোতে যেভাবে লকডাউন করছে তাতে কারো ঢোকা বা বের হওয়ার পথ থাকছে না আমাদের লকডাউনে সবকিছু খোলা থাকছে থাকছে, শুধুমাত্র আমাদের সেফটির জন্য গতিরোধ করে তাদেরকে জীবাণুনাশক স্প্রে করছে এটাই আমাদের অপরাধ ।


আমাদের আংশিক লকডাউন বন্ধ ঘোষণার মাধ্যমে জনগণকে চলাচলে কী উৎসাহিত করা হলো না!! সাবাস বাংলাদেশ!

লেখক : সহ-সভাপতি, চুয়াডাঙ্গা জেলা ছাত্রকল্যাণ পরিষদ,জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ