আমাদের সময় পত্রিকায় প্রকাশিত ট্রমা সেন্টার সংক্রান্ত প্রতিবেদনের প্রতিবাদ

প্রকাশিতঃ ৬:৪৯ অপরাহ্ণ, রবি, ২৬ জুলাই ২০

সময় জার্নাল ডেস্ক : সাবেক স্বাস্থ্য মন্ত্রী প্রফেসর ডাঃ আ ফ ম রুহুল হক স্যারের ট্রমা সেন্টার হাসপাতালের পূর্ণ নাম ট্রমা সেন্টার এন্ড এও অর্থোপেডিক হসপিটাল (প্রাঃ) লিঃ সংক্ষেপে ট্রমা সেন্টার নামে পরিচিত। ৩ দশক ধরে প্রফেসর ডাঃ আ.ফ.ম. রুহুল হক (এম বি বি এস, এফ আর সি এস) স্যারের নেতৃত্বে নিজস্ব ভবনে ২২/৮/এ, ব্লক বি,মিরপুর রোড, শ্যামলী ঢাকা -১২০৭, অত্যন্ত সুনামের সহিত লক্ষ লক্ষ মানুষের চিকিৎসা সেবা দিয়ে আসছে এবং ট্রমা সেন্টার এন্ড এও অর্থোপেডিক হসপিটাল (প্রাঃ) লিঃ এর কোথাও কোন শাখা নাই।

গত ২৩/০৭/২০২০ তারিখে আমাদের সময় পত্রিকায় ‘‘সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী রুহুল হকের ট্রমা সেন্টার বন্ধের নির্দেশ’’ শিরোনামে প্রথম পাতায় যে সংবাদটি প্রকাশিত হয়েছে তা আমাদের দৃষ্টিগোচর হয়েছে যা সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন। ‘‘ঢাকা ট্রমা সেন্টার’’ নামে প্রতিষ্ঠানটি ২৩/৬ রুপায়ন সেন্টার (৩য় তলা) এই ঠিকানায় ব্যাবসা করে আসছিল। সাম্প্রতিক সময়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ঢাকা ট্রমা সেন্টারের অনিয়ম পান ও ব্যবস্থা নেন। শুধু মাত্র নামের কিছুটা মিল থাকার ফলে অনেকেই বিভ্রান্ত হয়ে আমাদের স্বনামধন্য ট্রমা সেন্টার ও ঢাকা ট্রমা সেন্টারকে এক করে ফেলছেন। যার ফলে অনেক প্রিন্ট মিডিয়া ও ইলেকট্রিক মিডিয়া এই বিষয়টা সঠিকভাবে যাচাই বাছাই না করেই সংবাদ পরিবেশন করছেন। বিষয়টি খুবই দুঃখজনক। ঢাকা ট্রমা সেন্টারের সাথে রুহুল হক স্যারের ট্রমা সেন্টারের কোন সম্পর্ক নাই। এ ধরনের মিথ্যা, বানোয়াট ও ভিত্তিহীন সংবাদ প্রকাশের ফলে মুল ট্রমা সেন্টারের সুনাম নষ্ট হচ্ছে ও রুগীদের মধ্যে বিভ্রান্তি সৃষ্টি হচ্ছে। ট্রমা সেন্টার পরিবার এই মিথ্যা ,বানোয়াট ও ভিত্তিহীন সংবাদের তীব্র প্রতিবাদ জানাচ্ছে। আশা করি ভবিষ্যতে এরূপ সংবাদ প্রকাশের ক্ষেত্রে সাবধানতা অবলম্বন করা হবে।

এই বিষয়টি নিয়ে আমরা গত ২২/০৭/২০২০ তারিখ , বুধবার, দৈনিক ‘‘বাংলাদেশ প্রতিদিন’’ পত্রিকায় ৭ম পাতায় একটি বিজ্ঞপ্তি দেই, একইসাথে আমাদের ট্রমা সেন্টার নামে ফেইসবুক পেজে ভিডিওর মাধ্যমেও প্রতিবাদ জানাই । দৃঢ়ভাবে বলতে চাই ঢাকা ট্রমা সেন্টারের সাথে রুহুল হক স্যারের ট্রমা সেন্টারের কোন প্রকার সংশ্লিষ্টতা নাই । জনগনকে বিভ্রান্ত ও প্রতারিত না হওয়ার জন্য অনুরোধ করছি। আমরা অতিতের মতো আজ পর্যন্ত সকল সময় আপনাদের চিকিৎসা সেবাই সর্বদা নিয়োজিত আছি ও ভবিষ্যতে থাকবো। -বিজ্ঞপ্তি

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।