আ‘লীগ নেতাদের মেরুদণ্ড কাগজের তৈরি: রিজভী

প্রকাশিতঃ ৭:০০ অপরাহ্ণ, সোম, ৪ নভেম্বর ১৯

নিউজ ডেস্ক: আওয়ামী লীগ নেতাদের মেরুদণ্ড নিউজ প্রিন্টের কাগজের তৈরি বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। যেমন সাদা কাগজের নিউজ প্রিন্ট ধরলেই ছিড়ে যায়। তেমনি আওয়ামী লীগ নেতাদের মেরুদণ্ড নাই। কারণ, তারা দুর্নীতিবাজ ও চোর সরকারকে সমর্থন দিয়ে যাচ্ছে।

সোমবার ৪ নভেম্বর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক দোয়া মাহফিলে তিনি এসব কথা বলেন। বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সুস্থতা কামনায় দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে স্বেচ্ছাসেবক দল ঢাকা মহানগর দক্ষিণ।

দেশের অবস্থা আজকে বিপন্ন বলে দাবি করে রিজভী বলেন, ‘দেশকে ভয়ঙ্কর অন্ধকারময় গুহার দিকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

‘বাবা-মা শিখিয়েছেন দেশকে কীভাবে ভালোবাসতে হয়’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এই বক্তব্যের প্রসঙ্গ টেনে রিজভী আরও বলেন, ‘‘কিন্তু এই প্রধানমন্ত্রীর আমলেই ক্যাসিনোর খনি, জুয়া আর টাকার খনি তৈরি হয়েছে। তার বাবা বলেছিলেন ‘সবাই পায় সোনার খনি, আর আমি পেলাম চোরের খনি’। আজকে তাদের মুখে দেশপ্রেমের কথা শুনতে হয়। সাবেক মন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী হিন্দি ভাষায় কথা বলেন। তাদের মাঝে তো দেশপ্রেম নেই। আছে দিল্লিপ্রেম।

খালেদা জিয়ার অসুস্থতা নিয়ে প্রধানমন্ত্রী মিথ্যাচার করেন বলে অভিযোগ করে রিজভী বলেন, ‘বিএনপির চেয়ারপারসন নির্দোষ। তার বিরুদ্ধে যে দুই কোটি টাকার অভিযোগ দেয়া হয়েছে, সেই টাকা ব্যাংকে আছে। প্রধানমন্ত্রী তাকে বাইরে রাখবেন না। এজন্য তাকে নির্বাচনের আগে মিথ্যা মামলায় সাজা দিয়ে কারাগারে বন্দি রাখা হয়েছে। তার চিকিৎসকরা বলছেন তিনি গুরুতর অসুস্থ।

আজকে দেশে আওয়ামী লীগ নেই মন্তব্য করে বিএনপির এই নেতা বলেন, ‘কারণ আজকে যারাই ক্যাসিনো বা অন্যান্য দুর্নীতিতে ধরা পড়ে তারা বলে আগে বিএনপি করতো। বিএনপি থেকে লোক গিয়ে আওয়ামী লীগ ভরে গেছে। এখন আওয়ামী লীগ আর কেউ করতে চায় না, যা তাদের বক্তব্যেই প্রমাণিত হয়।

দোয়া মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব হাবিব উন নবী খান সোহেল, দলের স্বেচ্ছাসেবক বিষয়ক সম্পাদক মীর সরফত আলী সপু, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ বিএনপির সহ-সভাপতি নবী উল্লাহ নবী, স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি শফিউল বারী বাবু, সিনিয়র সহসভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান, সহসভাপতি গোলাম সারোয়ার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল কাদির ভুইয়া জুয়েল প্রমুখ

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ