আহা কৃষক, আহ ধান !

প্রকাশিতঃ ৩:১২ পূর্বাহ্ণ, শুক্র, ১৭ মে ১৯

নিউজ ডেস্ক : আহা উহু করা ছাড়া কি তবে আর কিছুই করার নেই আমাদের? সংবাদ মাধ্যমে ধান নিয়ে যেসব চিত্র আর খবর ছড়িয়ে পড়ছে তার উদ্বেগের মাত্রা ভয়ানক।

কোথাও কৃষক পাকা ফসলে দিচ্ছেন আগুন, কোথাও রাস্তায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে দিচ্ছেন ধান। এর পুরোটাই দাম নিয়ে অসন্তোষ থেকে। ধানের দাম পানির চাইতেও কম দরে বিকাচ্ছে।

কৃষক বলছেন, ধানের ন্যায্য দাম তারা পাচ্ছেন না। যে দাম রয়েছে তাতে ধান কাটার শ্রমিকের শ্রমের দামও উঠছে না। তাই বাধ্য হয়ে বিভিন্ন ভাবে প্রতিবাদ জানাচ্ছেন তারা।

এদিকে বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন কৃষিমন্ত্রী ড. আব্দুর রাজ্জাব। তিনি বলেন, কৃষক লাভ না পাওয়া সত্ত্বেও রাজনৈতিক প্রভাবসহ নানা কারণে মধ্যস্বত্বভোগীদের বাদ দিয়ে সরাসরি চাষিদের কাছ থেকে ধান কেনা সম্ভব হচ্ছে না।

বৃহস্পতিবার (১৬ মে) দুপুরে সচিবালয়ে কৃষিমন্ত্রী বলেন, ‘ধান এতই উৎপাদন হয়েছে যে এখনি সমস্যার সমাধান করা সম্ভব নয়। গভীর পর্যালোচনা করছি কি কি উপায়ে পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে পারি এবং চাষির মুখে হাসি ফোটাতে পারি।’

তবে সরকারি হিসাব বলছে, ২০১৭ সালের বন্যায় প্রায় ১০ লাখ টন চালের উৎপাদন কম হয়েছিল। বন্যার পরে সব মিলিয়ে প্রায় ৮২ লাখ টন চাল আমদানি হয়েছে।

আমদানি শুল্ক প্রত্যাহার ও ব্যাংকঋণের সুবিধা নিয়ে প্রভাবশালী ব্যবসায়ীরা মূলত ওই চাল আমদানি করছেন। ওই বিপুল পরিমাণ চাল আমদানির ফলে বিপদে পড়েছেন দেশের কোটি কোটি বোরো চাষি।

উপকরণের দাম বেড়ে যাওয়ায় কৃষকদের উৎপাদন খরচ বেড়ে গেছে। কিন্তু আমদানি করা চাল বাজার দখলে রাখায় চাষিরা হাটে-বাজারে ধান বিক্রি করতে পারছেন না। চালকল মালিকেরা ধান না কেনায় দাম গেছে পড়ে। ফলে উৎপাদন খরচের চেয়ে কম দামে ধান-চাল বিক্রি করতে হচ্ছে কৃষকদের।

বর্তমান বাজারে বোরো ধানের মণ ৫০০ থেকে ৬০০ টাকা। ন্যায্য দাম না পেয়ে বঞ্চিত কৃষক ক্ষোভে দুঃখে অভিনব এক প্রতিবাদ করেছেন টাঙ্গাইলের কৃষক আবদুল মালেক সিকদার। গত রোববার নিজের পাকা ধানের ক্ষেতে পেট্রোল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দিয়েছেন তিনি।

এদিকে ন্যায্যমূল্য না পাওয়ায় রাস্তায় ধান ছিটিয়ে প্রতিবাদ জানিয়েছেন রংপুরের কৃষকরা। রংপুর নগরীর সাত মাথা রোডে কৃষক সংগ্রাম পরিষদের আয়োজনে বৃহস্পতিবার (১৬ মে) মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচি পালন করা হয়।

প্রতিবাদ কর্মসূচিতে ধানের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা, সরকারি উদ্যোগে হাটে হাটে ক্রয় কেন্দ্র খুলে সরাসরি কৃষকের কাছ থেকে ধান কেনার দাবি জানান কৃষকরা।

ঢা/এমএম

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ