ইতালিতে ফের বাড়ল লকডাউন

প্রকাশিতঃ ৯:২৭ পূর্বাহ্ণ, শনি, ১৪ নভেম্বর ২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রকোপ বাড়তে থাকায় লকডাউনের বিধিনিষেধ আবারও বাড়িয়েছে ইতালি। সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতির কারণে দেশটির বেশ কিছু অঞ্চলকে ‘রেড জোন’ ঘোষণা করা হয়েছে।

করোনা সংক্রমণের হারের ওপর ভিত্তি করে তিনস্তরের লকডাউন পদ্ধতি চালু করেছে ইতালি। এর মধ্যে লাল চিহ্নিত এলাকা বা রেড জোনে সংক্রমণ বেশি থাকায় বিধিনিষেধ সবচেয়ে বেশি।

কমলা বা অরেঞ্জ জোনে ঝুঁকি মধ্য মানের এবং হলুদ রং বা ইয়েলো জোনে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি তুলনামূলক কম।

রেড জোন এলাকাগুলো স্বয়ক্রিয়ভাবেই আংশিক লকডাউন হয়ে যায়। সেখানে মুদি দোকান, ফার্মেসির মতো অতিজরুরি ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান ছাড়া বাকি সব বন্ধ করে দেয়া হয়।

ইতালির ন্যাশনাল হেলথ ইনস্টিটিউটের পরিচালক জিয়ানি রেজা জানান, দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে রোগী ভর্তির সংখ্যা আশঙ্কাজনক হারে বেড়ে যাওয়ায় কঠোর বিধিনিষেধ ফিরিয়ে আনতে হয়েছে।

ইতালিতে প্রতি এক লাখ মানুষের মধ্যে করোনায় আক্রান্তের হার ৬৫০ জনে পৌঁছে গেছে।

সবচেয়ে গুরুতর অবস্থা ক্যাম্পানিয়া অঞ্চলে। সেখানে গত ১ অক্টোবর হাসপাতালে করোনা রোগী ভর্তি ছিলেন ৪২১ জন। গত শুক্রবার এই সংখ্যা এসে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ১৫৩ জনে। এদের মধ্যে ১৮৩ জন নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) রয়েছেন। অথচ ছয় সপ্তাহ আগেও সেখানে আইসিইউতে রোগী ছিলেন মাত্র ৩৮ জন।

করোনা সংক্রমণের হালনাগাদ তথ্যপ্রকাশকারী ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যমতে, ইতালিতে এপর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ১১ লাখ ৭ হাজার ৩০৩ জন। মারা গেছেন ৪৪ হাজার ১৩৯ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন ৪০ হাজারের বেশি, মারা গেছেন অন্তত ৫৫০ জন। সূত্র : আল জাজিরা

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।