ইতালির ৭১ বছর পর ৯ গোল

প্রকাশিতঃ ৫:১৭ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ২১ নভেম্বর ১৯

স্পোর্টস ডেস্ক: সোমবার ঘরের মাঠে রেকর্ডরাঙা ম্যাচে আর্মেনিয়াকে ৯-১ গোলে গুঁড়িয়ে দিয়েছে আজ্জুরিরা। ৭১ বছর পর এই ব্যবধানে জিতল তারা। ইতালির মতো আগেই ইউরো যাত্রা নিশ্চিত করা স্পেনও শেষ ম্যাচে ৫-০ গোলের বড় জয় পেয়েছে রুমানিয়ার বিপক্ষে। ‘ডি’ গ্রুপ থেকে এ দিন মূলপর্বের টিকিট কেটেছে সুইজারল্যান্ড ও ডেনমার্ক। ডাবলিনে ডেনমার্কের সঙ্গে ১-১ গোলে ড্র করে কপাল পুড়েছে আয়ারল্যান্ডের। অপর ম্যাচে জিব্রাল্টারকে ৬-১ গোলে উড়িয়ে দিয়ে গ্রুপসেরা হয়েছে সুইজারল্যান্ড।

‘জে’ গ্রুপে ১০ ম্যাচের সবকটি জিতে ইতালি রাঙিয়েছে ইতিহাসের পাতা। বড় কোনো টুর্নামেন্টের বাছাইপর্বে তাদের শতভাগ জয়ের রেকর্ড এই প্রথম। এই ১০ ম্যাচে ৩৭ গোল করার বিপরীতে মাত্র চার গোল হজম করেছে তারা। সব মিলিয়ে মানচিনির অধীনে ইতালি জিতেছে টানা ১১ ম্যাচ। শেষটিতে আর্মেনিয়াকে গোল বন্যায় ভাসিয়ে রেকর্ড বইয়ের আরও কিছু পাতায় দাগ কেটেছে মানচিনির দল। ১৯৪৮ সালের পর এটি ইতালির সবচেয়ে বড় জয়।

সেবার অলিম্পিকে যুক্তরাষ্ট্রকে ৯-০ গোলে হারিয়েছিল তারা। এছাড়া ১৯২৮ অলিম্পিকে মিসরের বিপক্ষে ১১-৩ ও ১৯২০ সালে ফ্রান্সের বিপক্ষে প্রীতি ম্যাচে ৯-৪ গোলের দুটি বড় জয় আছে ইতালির। তবে এবারের জয়ে সাত গোলদাতার রেকর্ডটা অদ্বিতীয়। পালের্মোর মাঠে আর্মেনিয়াকে দুরমুশ করার পথে ইমোবিল ও জানিওলোর জোড়া গোলের পাশাপাশি একটি করে গোল করেন বারেল্লা, রোমাগনোলি, জর্জিনহো, ওরসোলিনি ও চিয়েসা।

মাদ্রিদে রুমানিয়ার বিপক্ষে স্পেনের দাপুটে জয়ে জেরার্ড মোরেনোর জোড়া গোলের পাশাপাশি ব্রুইজ ও মিকেল করেন একটি করে গোল।

অপর গোলটি আত্মঘাতী। ১০ ম্যাচে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে ‘এফ’ গ্রুপের শীর্ষ দল হিসেবে বাছাইপর্ব শেষ করলেও স্পেন শিবিরে বাজছে বিদায়ের বিউগল। বর্তমান কোচ রবার্তো মোরেনোকে অব্যাহতি দিয়ে আগের কোচ লুইস এনরিকেকে আবার ফিরিয়ে আনতে যাচ্ছে স্পেন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ