ইরানে হামলার অনুমোদন থেকে সরে এলেন ট্রাম্প

প্রকাশিতঃ ৫:০৫ অপরাহ্ণ, শুক্র, ২১ জুন ১৯

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: নতুন মোড় নিয়েছে ইরান-আমেরিকা উত্তেজনা। অল্পের জন্য শুরু হয়নি যুদ্ধ। তবে যেকোনো মুহূর্তে পাল্টে যেতে পারে পরিস্থিতি। বৃহস্পতিবার যুক্তরাষ্ট্রের একটি ড্রোন ভূপাতিত করেছে ইরান। এর জবাবে দেশটিতে হামলা চালানোর নির্দেশ দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে কিছুক্ষণ পরেই অজানা কারণে নির্দেশ প্রত্যাহার করে নেন। নির্দেশটি প্রত্যাহার না নিলে এতক্ষণে বিশ্ব শুরু হয়ে যেত নতুন এক যুদ্ধ। হুমকিতে পড়তো বহু প্রাণ।

এ খবর দিয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমস।

হোয়াইট হাউজের বরাত দিয়ে খবরে বলা হয়, ইরানে হামলা চালানোর প্রাথমিক প্রস্তুতি নিয়ে ফেলেছিল যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক বাহিনী। তখন আচমকাই নিজের হামলার নির্দেশ বাতিল করে দেন ট্রাম্প। ঠিক কী কারণে নিজের সিদ্ধান্ত থেকে সরে এসেছেন ট্রাম্প সে বিষয় এখনো স্পষ্ট নয়। এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি হোয়াইট হাউজ।

বৃহস্পতিবার ইরান দাবি করে, তারা একটি মার্কিন গোয়েন্দা ড্রোনকে গুলি করে ভূপাতিত করেছে। তাদের দাবি ছিল, ইরানের জলসীমায় ঢুকে পড়েছিল ড্রোনটি। দেশের নিরাপত্তার কারণেই সেটাকে ভূপাতিত করা হয়। এদিকে, পেন্টাগন তাদের ড্রোন ভূপাতিত হওয়ার খবর স্বীকার করেছে। তবে তাদের দাবি, এটি ছিল টহল ড্রোন। আর এটি আন্তর্জাতিক জলসীমার উপরেই ছিল।

ড্রোনে হামলার ঘটনায় এক টুইটে ট্রাম্প বলেছিলেন বলেন, এটা ইরানের বড় ভুল ছিল। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, তেল নিয়ে ইরানের সঙ্গে আমেরিকার এমনিতেই একটা ঠান্ডা যুদ্ধ চলছে। তার মধ্যে এই ঘটনা দু’দেশের মধ্যে উত্তেজনা আরও বাড়িয়ে তুলল।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ