একজন নারী উদ্যোক্তা থেকে সফল জনপ্রতিনিধি

প্রকাশিতঃ ৪:১৪ অপরাহ্ণ, সোম, ১০ ফেব্রুয়ারি ২০

আবু রায়হান চৌধুরী: নারী উদ্যোক্তা থেকে একজন সফল জনপ্রতিনিধি সেলিমা আহমাদ মেরি এমপি। স্বাধীনতার ৪৭ বছর পর বিগত ২০১৮ সালে অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির হেভিওয়েট প্রার্থী ডক্টর খন্দকার মোশারফ হোসেনকে বিপুল ভোটে পরাজিত করে কুমিল্লা-২ হোমনা-তিতাস আসনের সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

তিনি নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে এলাকার উন্নয়নে মহা পরিকল্পনা গ্রহণ করেন। তার গৃহীত পরিকল্পনার আলোকে তিনি একের পর এক উন্নয়ন কর্মকান্ড বাস্তবায়ন করে চলেছেন।

তার প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নের মাধ্যমে একজন জনপ্রিয় সফল জনপ্রতিনিধি হিসেবে সকল শ্রেনী পেশার জনসাধারণের হৃদয় গহীনে স্থান করে নিয়েছেন। একজন সংসদ সদস্য হওয়ার পরও নিজেকে সাধারণ মানুষের সেবক হিসেবেই পরিচয় দিতে বেশী স্বাচ্ছন্দবোধ করেন।

এছাড়াও ছোটবেলা থেকেই সমাজ ও সমাজের মানুষের কল্যাণে নিজেকে উজাড় করেছেন। সমাজের মানুষও তাকে নির্বাচিত করেছেন এবং জনপ্রতিনিধি হিসেবে সংসদ সদস্যের আসনে বসিয়েছে। তাইত তিনি মানুষের ভালোবাসা আর সমর্থনের যোগ্য প্রতিদান দিতে ভুল করেননি।

শিক্ষা-দিক্ষায় পিছিয়ে পড়া হোমনা-তিতাস বাসীকে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে ইতিমধ্যে বিভিন্ন স্থানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করা, যোগাযোগ ক্ষেত্রে রাস্তা-ঘাট মেরামত, নতুন রাস্তা ও কালভার্ট নির্মান, তথ্য প্রযুক্তির জ্ঞানের বিকাশ, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মসজিদ-মাদ্রাসাসহ অন্যান্য ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের ব্যাপক উন্নয়ন করেন।

নির্যাতন-বঞ্চনার অবসান ঘটিয়ে নিজেদের অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনকে এগিয়ে নেয়। সর্বোপরি ক্ষুধা-দারিদ্র্যমুক্ত এবং আত্মনির্ভরশীল বাংলাদেশ গড়ে তোলার অঙ্গীকার গ্রহণের মধ্য দিয়ে বিকশিত করেন নারী নেত্রীত্বের নেটওয়ার্ক। বিশেষ করে নারীদের জীবনধারায় উন্নয়নে তার পদক্ষেপ প্রশংসার দাবিদার।

বিভিন্ন এলাকার ঝুঁকিপূর্ণ  ঘুটঘুটে অন্ধকারচ্ছন্ন রাস্তা-ঘাটে সোলারের সড়কবাতির মাধ্যমে আলোকিত করেন জনপথ। মানসিক প্রস্বস্তি নিয়ে চলাচল করছে মানুষ। সোলার সড়কবাতির এই বিপ্লব ঘটিয়েছেন হোমনা-তিতাসে। বিদ্যুতের বিকল্প ব্যবহার ও নিরবচ্ছিন্ন আলো সরবরাহের জন্য এ উদ্যোগ নিয়েছেন তিনি। যেখানে সন্ধ্যার পর মানুষ রাস্তায় বের হতে চোর-ডাকাতের আতংঙ্কে ভুগতেন, সে ভয় কমে এখন স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন।

এছাড়া আইনশৃঙ্খলার উন্নতির লক্ষ্যে বিভিন্ন স্থানে সচেতনতা মূলক সভা ও সমাবেশ করে জনসাধারণকে উদ্বদ্ধ করেন। এমনকি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার মানোন্নয়নকে বেগবান করতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করেন এবং গুরুত্ব সহকারে ছাত্র-ছাত্রীদের পাঠদানের জন্য শিক্ষকদের তাগিদ দেন। তার এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন বিভিন্ন সুশীল সমাজের মানুষ।

গরীব দূঃখী মানুষ ও পরিবারকে স্বাবলম্বী করতে নিজ উদ্যোগে নিজস্ব অর্থায়নেকর্মসংস্থান সৃষ্টি, বস্ত্র বিতরণ, সেলাই মেশিন বিতরণ, ঘর নির্মাণ ও আর্থিক অনুদানের মাধ্যমে ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থা করে দিচ্ছেন।

ইতিমধ্যে তিনি কয়েক শত পরিবারকে স্বাবলম্বী করে তুলেছেন। শুধু তাই নয়, নিজস্ব অর্থায়নে দীর্ঘ ১০ বছর যাবত হোমনা-তিতাস উপজেলার দরিদ্র ও শীতার্ত হাজারো পরিবারের মাঝে শীতবস্ত্র বিতরণ ও ঈদ সামগ্রী বিতরণ করেছেন।

এছাড়া সমাজে অপরাধ, মাদক নির্মূল, ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে সেলিমা আহমেদ মেরি সর্বশ্রেনীর মানুষের মাঝে ব্যাপক সাড়া পেয়েছেন। তার নির্বাচনকালীন প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী প্রায় ৬০% কাজ ইতি মধ্যে সম্পন্ন হয়েছে বাকি ৪০% কাজ চলমান। তিনি কোন সেবায় উন্নয়নে কখনো দলমত চিন্তা করেননি। এলাকার উন্নয়নের জন্য দলমতের উর্ধে উঠে সমান ভাবে কাজ করছেন।

এলাকাবাসীরা জানায়,হোমনা-তিতাসে বিভিন্নি শ্রেনীর মানুষের বসবাস তাদের মধ্যে মুসলিম, হিন্দু, খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ও রয়েছেন। সকলের জন্য সমান ভাবে কাজ করে তিনি সর্বশ্রেনীর মানুষের কাঝে ভাল মানুষ হিসেবে স্থান করে নিয়েছেন।

উল্লেখ্য, সেলিমা আহমাদ মেরি ( এমপি) নিটল-নিলয় গ্রুপের ভাইস চেয়ারম্যান,বাংলাদেশ ওমেন্স চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রিজ এর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি (সিআইপি)।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ