একটি সুন্দর সকালের অপেক্ষা!!

প্রকাশিতঃ ৬:৫৭ পূর্বাহ্ণ, মঙ্গল, ২১ এপ্রিল ২০

মানিক মুনতাসির : হয়তো একদিন ঘুম ভেংগে দেখবো অন্য রকম সকাল। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলবে আজ পৃথিবীর কোথাও কোভিড-১৯ এর অস্তিত্ব পাওয়া যায়নি। বিশ্ব জুড়ে কোথাও নতুন আক্রান্ত কিংবা মৃত্যু নেই।

আমাদের মীরজাদী আপা বলবেন বাংলাদেশ এখন করোনামূক্ত। সরকারও ক্রেডিট নেবে আমাদের ক্ষতি কমই হয়েছে। মরেছে সব ইউরোপ-আমেরিকায়। কাঠ মোল্লারা বলবে আল্লাহর রহমত। হয়তো সেটাই সত্য। অবশ্যই।

আবার শুরু হবে হৈচৈ। প্রাণ ফিরে পাবে বিশ্ব। বাচ্চারা খেলবে আগের মত। মা বাবা আবার সন্তানকে আদর করবে নিঃসংকোচে। হাসপাতালগুলোতে চলবে উৎসব। সচল হবে অর্থনীতি। ঘুরবে গাড়ীর চাকা।

ঘুরবে মানুষের ভাগ্য। সৃষ্টিকর্তাকে কৃতজ্ঞতা জানাবে মানুষ। আজ হয়তো মানুষ এসবই ভাবছে।

কিন্তু আমি ভাবছি- মানুষ আবারো অমানুষ হবে। যুদ্ধ বাঁধবে নতুন করে। সৃষ্টি আর ধংসের যুদ্ধ। ঘুরে দাড়ানোর যুদ্ধ। তেলের যুদ্ধ। পেশিশক্তির যুদ্ধ। প্রতিপত্তির যুদ্ধ।

কারণ এখনো থেমে নেই যুদ্ধের প্রস্তুতি। রেকর্ড পরিমাণ অস্ত্র বিক্রি হয়েছে আমেরিকার। থেমে নেই চুরি কিংবা, ডাকাত, বন্দুকধারী। ধর্ষক এখনো হাসে আর ধর্ষণ করে। শিশুরা পায় না সম অধিকার। এখনো ভাংগেনি বিভেদের দেয়াল।

যদিও সবাই তাকিয়ে আছে আসমানপানে। আসে যদি কোন সমাধান৷ থেমে যায় যদি করোনাযুদ্ধ। নিশ্চিত থাকুন আজই শুরু হবে আবার ক্ষমতার যুদ্ধ।

আজ পর্যন্ত প্রায় ১ লাখ ৭০ হাজার মানুষ চলে গেছে করোনায়। শতাধিক গেছে বাংলাদেশেরও। আক্রান্ত প্রায় ২৫ লাখ। কোটিতে পৌছুতে হয়তো সময় নেবে না খুব বেশি। কিন্তু তা থেমে যাক আজই। এটাই যদি হতো। আহা! কি ভালোই না হতো!

প্রাণঘাতী কোভিড-১৯ এর টীকা হয়নি এখনো আবিস্কার। হলে হয়তো ব্যবহারের অগ্রাধিকার পাবে সেই মোড়লরাই। তৃতীয় বিশ্বে আসার আগেই তাদের শ্মশান কিংবা কবরস্থান যাবে ভরে।ফলে বৈষম্য ছিল আছে থাকবে। মানুষ যদি না হয় মানুষ। তবুও আশায় বুক বাঁধি। আসবে এক নতুন সকাল।

জয় হোক মনুষ্যকুলের। জয় হোক মানবিকতার। মংগল হোক মহাবিশ্বের। টিকে থাক মানব জাতি। কৃপা হোক আল্লাহর, ঈশ্বরের, সৃষ্টিকর্তার। ভাল থাকুন সকলে। সাবধানে থাকুন। করোনামুক্ত থাকুন, রাখুন সমাজটাকে।

২১ এপ্রিল। সকাল ৬.২৫ মিনিট। ২০২০।

লেখক : সিনিয়র রিপোর্টার, দৈনিক বাংলাদেশ প্রতিদিন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ