একাকী জীবন ǁ শিরিনা বীথি

প্রকাশিতঃ ৮:৪৫ অপরাহ্ণ, রবি, ৬ সেপ্টেম্বর ২০

একলা ঘরে একাকী থাকার ইচ্ছে কখনো সখনো হয়েছে
সেটা নিতান্তই একটু নিজের মতো করে আমিত্বকে জানবার প্রয়াসে।
এমন ইচ্ছে বোধ করি কম বেশি সবার মনে উঁকি দেয়।
আমিও মানুষ সুতরাং এই চাওয়াটা অযোক্তিক কিছু নয়।

কিন্ত হায়!
একজন পরিপূর্ণ মানুষের একাকী জীবন
অসম্ভবের চূড়ান্ত রুপ
কি ভয়ংকর আর অসহ্য সে ক্ষণ জানে শুধু অন্তর্যামী
কি এক দূর্বোধ্য বেড়াজালে আবদ্ধ
জানে শুধু ও-ই প্রাণীটি।
হাজারো যন্ত্রণায় কাতর মানুষটিকে কেও পারবে না ছুঁয়ে দেখতে,
পারবে না তার আলতো দুটি হাত প্রেয়সীর গ্রীবা স্পর্শ করতে
জীর্ণ ক্লিষ্ট নিথর শরীরেটিকে একটু প্রশান্তি দেবার কোন চেষ্টাটুকুও করা যাবে না,
কি দুঃসহ জীবন!

রক্তের বন্ধনও ছিন্ন করে দেয় ছোঁয়াচে ব্যধি,
মানুষের অন্তরাত্মার গভীরে শুধু লুকিয়ে থাকে
নদীর পাড় ভাঙা শব্দের মতো কোন আওয়াজ।

বিধাতার অভিমানের চূড়ান্ত পরিণতি আমরা ভোগ করছি
তারপরও আমরা কি সত্যি মানুষ হচ্ছি?

আমাদের ভেতর ভর করে আছে ইবলিসের বংশধর
সেই মোহেই মত্ত থেকে চলছি অবিরল
কিন্তু ভয়াবহ পরিণতি আমাদের দ্বারপ্রান্তে।

তারপরও…
হয়তো কেওই রেহাই পাব না।
তাই জীবন যুদ্ধের তীব্র প্রতিযোগিতায় আবিষ্ট না হই
সবার কল্যাণের জন্য একাত্ম হই
পৃথিবীর সব থেকে নগণ্য প্রাণীটিকেও তার প্রাপ্যতা বুঝিয়ে দেই।
তারপরও যদি মুক্তি মেলে
সেই প্রত্যাশায় পরিপূর্ণ হোক ক্ষণস্থায়ী জীবন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।