করোনায় থেমে নেই আর্জেন্টাইন ফুটবল

প্রকাশিতঃ ৩:১৬ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ১৭ মার্চ ২০

স্পোর্টস ডেস্ক: আর্জেন্টিনার ফুটবলটাই অন্যরকম। বিশেষ করে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের মধ্যেকার ম্যাচগুলো।

হাজার হাজার মানুষ প্রিয় দলের জার্সি পরে খেলা দেখতে এসে চিৎকার করে যায় নব্বই মিনিট। ফুটবল নিয়ে দেশটার মানুষদের উন্মাদনার পারদ অনেক উচুঁতে। কিন্তু বিশ্ব যেখানে করোনাভাইরাসের কারণে থমকে আছে, সেখানে কী আর ফুটবলের উন্মাদনা চালানো যায়?

আপাতদৃষ্টিতে উত্তর ‘না’ হলেও, আর্জেন্টিনা সেটা মানছে কোথায়? এই সপ্তাহেও লিগের ম্যাচ চলেছে আর্জেন্টিনার মাঠগুলোয়। হ্যাঁ, এটা সত্যি যে কোনো দর্শক দেখতে যায়নি, দর্শকহীন মাঠে বন্ধ দরজার ওপারে ম্যাচগুলো হয়েছে, তাতে কী? করোনাভাইরাস তো আর দর্শক দেখে আসে না!

গত সপ্তাহে ভ্যালেন্সিয়া খেলে গিয়েছিল ইতালির ক্লাব আটালান্টার মাঠে, চ্যাম্পিয়নস লিগের ম্যাচ খেলতে। ফাঁকা মাঠে অনুষ্ঠিত হওয়া সে ম্যাচটায় ভ্যালেন্সিয়া হেরেছিল, আটালান্টা নিশ্চিত করেছিল তাদের বিদায়। কিন্তু এর থেকেও বড় ‘হার’ যে অপেক্ষা করছে তাদের জন্য, সেটা কি ঘুণাক্ষরেও টের পেয়েছিল তারা?

করোনাভাইরাস থেকে আর্জেন্টিনা যে একেবারে মুক্ত, তা কিন্তু না। এর মধ্যেই আক্রান্ত হয়েছেন ৫০ জনের মতো, মারা গেছেন দুজন। সেসবে আর্জেন্টিনার থোড়াই কেয়ার। লিওনেল মেসির দেশে এই সপ্তাহেও লিগের ম্যাচ চলেছে। বোকা জুনিয়র্স ৪-১ গোলে হারিয়েছে গদয় ক্রুজকে, সান লরেঞ্জো ৩-১ গোলে জিতেছে পাত্রোনাতোর বিপক্ষে। রেসিং ক্লাব ও আলদোসিভির ম্যাচটা শেষ হয়েছে ৪-৩ গোলে। এদের মধ্যেই উজ্জ্বল ব্যতিক্রম রিভার প্লেট। নিজেদের স্কোয়াডের একজন খেলোয়াড় থমাস গুতিয়েরেজের মধ্যে করোনাভাইরাসের লক্ষণ দেখা গেছে দেখে স্টেডিয়ামে তালা দিয়ে হোম কোয়ারেন্টিনে চলে গেছে সবাই।

সেদিন রিভার প্লেটের সঙ্গে খেলার কথা ছিল আতলেতিকো তুকুমানের। ম্যাচ রেফারি জার্মান দেলফিনো ও আতলেতিকো তুকুমানের জার্সিবাহক এসে দেখেন রিভার প্লেটের স্টেডিয়াম বন্ধ। পরে ফিরে যেতে হয় তাঁদের।

রিভার প্লেট যে খেলবে না, সেটার ঘোষণা তারা টুইটারেই দিয়েছে, ‘এমন স্বাস্থ্যঝুঁকির মধ্যে খেলা বিপজ্জনক বলে আমরা মনে করছি। আমাদের একজন খেলোয়াড়ের মধ্যে করোনাভাইরাসের লক্ষণ দেখা গিয়েছে। আমরা জানি এই অবস্থায় কী করতে হয়, করোনাভাইরাস আমাদের কী করতে পারে। তবে থমাস গুতিয়েরেজ আস্তে আস্তে সুস্থ হয়ে উঠছে।’ রিভারের এ সিদ্ধান্তে প্রতিপক্ষ দলের খেলোয়াড়েরাও খুশি হয়েছেন। জীবন দাম সবচেয়ে বেশি যে!

এখন রিভারের মতো শুভ বুদ্ধি বাকি ক্লাবগুলোর হলেই হয় !

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ