করোনায় আক্রান্ত বুর্কিনা ফাসোর চার মন্ত্রী

প্রকাশিতঃ ১০:০১ পূর্বাহ্ণ, রবি, ২২ মার্চ ২০

একদিনে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের খবর মিললো আফ্রিকার দেশ বুর্কিনা ফাসোর মন্ত্রিসভার চার সদস্যের। স্থানীয় সময় শনিবার দেশটির সরকারের এক মুখপাত্র এ খবর দিয়েছেন। বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবরটি প্রকাশ করেছে।

প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, পশ্চিম আফ্রিকার দেশ বুর্কিনা ফাসোতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২৪ জনের শরীরে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে কোভিড-১৯ রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬৪ জনে।

যে চার মন্ত্রীর শরীরে নভেল করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে তারা হলেন যথাক্রমে পররাষ্ট্র, খনিজ, শিক্ষা এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। দেশটির সরকারের মুখপাত্র এ তথ্য দিয়েছেন। তিনি বলেছেন, সম্প্রতি তারা করোনায় আক্রান্ত হন।

বুর্কিনা ফাসোর পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলফা ব্যারি স্থানীয় সময় শুক্রবার এক টুইট বার্তায় জানান, ‘গুজব অবশেষে সত্যি হয়েছে। আমি এইমাত্র জানতে পারলাম যে, আমি কোভিড-১৯ পজিটিভ।’ এর আগে পররাষ্ট্রমন্ত্রী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বলে গণমাধ্যমে খবর প্রকাশিত হয়েছিল।

দেশটির খনিজমন্ত্রী ওমারোউ ইদানি, ‍শিক্ষামন্ত্রী স্ট্যানলিম ওউরাউ এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সিমিওন সোয়াদোগো প্রত্যেকেই ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমে তাদের করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবর জানিয়েছেন।

গত ১১ মার্চ দেশটির মন্ত্রিসভার একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছিল। তবে তাতে সব মন্ত্রী ছিলেন কিনা তা এখেনো জানা যায়নি। আশঙ্কা করা হচ্ছে, যারা ওই বৈঠকে অংশ নিয়েছিলেন তারা প্রত্যেকেই করোনায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছেন।

দেশটিতে নিযুক্ত ইতালির রাষ্ট্রদূতও করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তিনি নিজে বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এই তথ্য দিয়েছেন। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ও এই তথ্য নিশ্চিত করেছে। বুরকিনা ফাসো আফ্রিকার একটি অনুন্নত দেশ।

আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থা ও সংগঠনের স্বাস্থ্য কর্মকর্তরা দেশটি করোনা সংক্রমণের মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে বলে তাদের শঙ্কা প্রকাশ করেছেন। এদিকে বিবিসি জানিয়েছে, আফ্রিকায় বৈশ্বিক মহামারি করোনার প্রাদুর্ভাব বেশ জোড়ালো হচ্ছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ