করোনায় আক্রান্ত ৪৩৪ স্বাস্থ্যকর্মী; বিএমএ মহাসচিবের উদ্বেগ

প্রকাশিতঃ ১০:১৯ পূর্বাহ্ণ, বৃহঃ, ২৩ এপ্রিল ২০

বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএ) তথ্য অনুযায়ী, দেশের ৪৩৪ জন স্বাস্থ্যকর্মীর করোনায় আক্রান্ত হয়েছে। এদিকে, ব্যাপকহারে স্বাস্থ্যকর্মীরা করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় উদ্বেগ জানিয়েছেন সংগঠনটির মহাসচিব ডা. ইহতেশামুল হক চৌধুরী।

বিএমএর তালিকা অনুযায়ী, আক্রান্ত ৪৩৪ জন স্বাস্থ্যকর্মীর মধ্যে ১৮৬ জন চিকিৎসক, নার্স ৬৬ জন এবং অন্যরা টেকনোলজিস্টসহ বিভিন্ন পর্যায়ের স্বাস্থ্যকর্মী।

চিকিৎসকদের মধ্যে সর্বোচ্চ আক্রান্ত ঢাকা বিভাগে ১৩৭ জন। পর্যায়ক্রমে ময়মনসিংহে ১৭, খুলনায় ১০, চট্টগ্রামে ৯, বরিশালে ৮, রংপুরে ৩ এবং সিলেটে ২ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

নার্সদের মধ্যেও সর্বোচ্চ আক্রান্ত ঢাকা বিভাগে ৬৬ জন। এরপর ময়মনসিংহে ৯ জন, বরিশালে ২ এবং সিলেটে ১ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

টেকনোলজিস্টসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্ত হয়েছেন মোট ১৮২ জন। তাদের মধ্যে সর্বোচ্চ আক্রান্ত ঢাকা বিভাগে ১৪৩ জন। পর্যায়ক্রমে ময়মনসিংহে ২৬ জন, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও খুলনায় ৪ জন করে এবং রংপুরে ১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। চিকিৎসক আক্রান্ত হওয়ার হার ৪ দশমিক ৯৩ শতাংশ। নার্স আক্রান্ত হওয়ার হার ১ দশমিক ৭৪ শতাংশ। টেকনোলজিস্টসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যকর্মী আক্রান্তের হার ৪ দশমিক ৮২ শতাংশ।

মহাসচিব ডা. ডা. ইহতেশামুল হক চৌধুরী বলেছেন, মানহীন পিপিই সরবরাহ করে স্বাস্থ্যকর্মীদের যেভাবে ঝুঁকির মধ্যে ফেলে দেওয়া হলো, তার দায় কে দেবে? শুনতে পাচ্ছি, দুর্যোগকালীন পরিস্থিতি কাজে লাগিয়ে পাঁচ থেকে ১০ গুণ বাড়তি মূল্য দিয়ে এসব মানহীন পণ্য ক্রয় করে একটি চক্র লাভবান হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রী নিজেও মানহীন এসব পণ্য ক্রয়ের সঙ্গে জড়িতদের সতর্ক করেছেন। এরপরও তা বন্ধ হয়নি। কারা এর পেছনে রয়েছে তা খুঁজে বের করা জরুরি। তা না হলে হাজার হাজার স্বাস্থ্যকর্মীর জীবন ঝুঁকির মধ্যে পড়বে। তাদের জন্য গুণগত মানসম্পন্ন পিপিইসহ অন্যান্য সামগ্রী নিশ্চিত করার দাবি জানান তিনি।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ