করোনায় শিক্ষার্থীদের জন্য জরুরি বার্তা

প্রকাশিতঃ ৬:১৫ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ২৩ জুন ২০

ইমরান মাহফুজ

পত্রিকা রিপোর্ট ও গবেষকদের ভাষ্যমতে আগামী ৩মাস কিংবা তারও অধিক সময় পরিস্থিতি আরও ভয়াবহের দিকে যাবে বা থাকবে। প্রসঙ্গত, আমার কিছু প্রস্তাব।

১. ঢাকা বা যেকোন নগরের ভাড়া বাসা থাকলে ছেড়ে দেন। মালামাল আনতে অসুবিধা হলে কয়েকজন মিলে একরুমে মাল রেখে দেন। টাকা সাশ্রয় হবে।

২. পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে সময় লাগবে, মূল্যবান কাগজপত্র নিজের কাছে নিয়ে রাখুন।

৩. মেয়েদের ক্ষেত্রে বাড়ির মালিককে বলে সাথে ভাই বন্ধুকে দিয়ে উপরোক্ত কাজগুলো করে নিতে পারেন।

৪. শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কবে খুলে তার কোন ঠিক ঠিকানা অজানা। সুতরাং মানসিকভাবে ভেঙে না পড়ে আত্মনির্ভরশীল ভাবনায় পড়াশোনা করেন। জীবন আপনার, আপনার সিদ্ধান্তে আগানোর জন্য প্রস্তুতি নেন।

৫. কলেজ, মাদ্রাসা, বিশ্ববিদ্যালয় ভেদাভেদ না করে, হিংসা বিদ্বেষ না করে শিক্ষার্থী পরিচয়ে মিলেমিশে থাকার চেষ্টা করেন। এতে দেশ ও দশের ভালো হবে।

৬. সারা পৃথিবীর চলমান সংকট অভিন্ন, সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হবে বাংলাদেশের মতো রাষ্ট্র। দ্রুত পরিবর্তন হয়ে যাচ্ছে যাবে গতানুগতিক সিস্টেম। কাজ হবে নতুন ভাবনায়। বলা যায় চতুর্থ শিল্পবিপ্লব শুরু। প্রস্তুতি নেন। কায়দা করে টিকে থাকার… উপায় নেই!

৭. করোনা যে কারো হতে পারে মানসিক প্রস্তুতি রাখেন। শারীরিক মানসিক শক্তি সঞ্চয় করুন।
যে কোন পজিটিভ তথ্য জানুন। শেয়ার করুন।

মন আমার আমি কই কেউ কথা কয় না
হাজার মানুষের শহর মুখোমুখি হয় না!

ইমরান মাহফুজ

লেখক, কবি ও গবেষক

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।