করোনা এখনও আগের মতোই শক্তিশালী

প্রকাশিতঃ ১:৫৩ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ২ জুন ২০

করোনাভাইরাসের এখনও শক্তিক্ষয় হয়নি। বরং এটা আগের মতোই শক্তিশালী ও বিপজ্জনক। বিশ্বব্যাপী লকডাউন তুলে দেওয়ার তাড়াহুড়োর মধ্যেই নতুন করে সতর্কবার্তা দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। সম্প্রতি ইটালির এক প্রথম সারির চিকিৎসকের ‘শক্তি কমেছে করোনাভাইরাসের’ এমন এক দাবির প্রেক্ষিতে এ সতর্কর্তা জারি করেছে হু।

স্থানীয় সময় সোমবার (১ জুন) সন্ধ্যায় প্রতিষ্ঠানটির জরুরি বিভাগের কর্তা মাইকেল রায়ান এ তথ্য জানিয়েছেন।

মাইকেল রায়ান বলেন, ‘আমাদের আরও গুরুত্ব দিয়ে ভাবতে হবে। এটা একটা মারক ভাইরাস। ভাইরাসটি হঠাৎ স্বেচ্ছায় শক্তিক্ষয় করে আগের তুলনায় দুর্বল হয়ে গেল। এবং আগের থেকে কম মারাত্মক হয়ে গেল, এই ধরনের চিন্তাভাবনা একেবারেই ঠিক নয়।’

তিনি আরো বলেন, গোটা বিশ্বে তো বটেই ইটালিতেও করোনা ভাইরাস আগের মতোই বিপজ্জনক। প্রতিদিন নতুন আক্রান্তের সংখ্যা দেখলেই তা স্পষ্ট হয়ে যাবে।

সম্প্রতি ইটালির এক প্রথম সারির চিকিৎসক দাবি করেন, সে দেশে আর করোনা ভাইরাসের মারক প্রভাব নেই। ভাইরাসটির মারণ ক্ষমতা এখন আগের তুলনায় অনেকটা কম। তাছাড়া আগের তুলনায় পরিমাণেও কম মিলছে রোগীদের নমুনায়।

ওই চিকিৎসকের কথায়, ‘যদি সেভাবে বলতে হয়, তাহলে ইটালিতে এই ভাইরাসের আর অস্তিত্ব নেই। শেষ দশদিন যে লালারসের নমুনা আমরা পেয়েছি, তাতে দেখা যাচ্ছে দু’মাস আগের তুলনায় ভাইরাসটির পরিমাণ নেহাতই নগণ্য।’

প্রসঙ্গত, হু আগেই জানিয়েছিল, লকডাউন তুলতে হলে প্রয়োজন ‘চূড়ান্ত নজরদারি’। বিধিনিষেধ শিথিল হওয়ার পর সাবধানতা অবলম্বন না করলে ফের দ্রুত গতিতে ছড়াতে পারে করোনা ভাইরাস। কিন্তু সম্প্রতি দেখা গিয়েছে, ইটালিসহ গোটা ইউরোপেই আগের তুলনায় করোনার প্রভাব খানিকটা কম। এবং সেকারণেই গোটা ইউরোপ ধীরে ধীরে লকডাউন তুলে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে চাইছে। বেশ কিছু দেশে সেই প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।