করোনা থেকে সুস্থ ৬৪ লাখ ৩৩ হাজারের বেশি মানুষ

প্রকাশিতঃ ৮:৪৫ পূর্বাহ্ণ, রবি, ৫ জুলাই ২০

বৈশ্বিক মহামারি নভেল করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে। এ ভাইরাসে সারা বিশ্বে আজ রোববার পর্যন্ত আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে এক কোটি ১৩ লাখ ৭৮ হাজারের বেশি মানুষ। তাদের মধ্যে বর্তমানে ৪৪ লাখ ১১ হাজার ৬৩২ জন চিকিৎসাধীন এবং তাদের মধ্যে ৫৮ হাজার ৫৩০ জন (২ শতাংশ) আশঙ্কাজনক অবস্থায় রয়েছে। তবে ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে উঠেছে অনেক মানুষ। এ পর্যন্ত করোনাভাইরাস আক্রান্তদের মধ্যে ৬৪ লাখ ৩৩ হাজার ৯৬৩ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে।

বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসের সর্বশেষ পরিসংখ্যান জানার অন্যতম ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী, করোনাভাইরাসজনিত কোভিড-১৯ রোগে থেকে যুক্তরাষ্ট্রে সেরে উঠেছে ১২ লাখ ৬০ হাজার ৪০৫ জন, ব্রাজিলে ৯ লাখ ৭৮ হাজার ৬১৫, রাশিয়ায় চার লাখ ৪৬ হাজার ৮৭৯ জন, ভারতে চার লাখ ৯ হাজার ৬২, চিলিতে দুই লাখ ৫৭ হাজার ৪৪৫, ইরানে এক লাখ ৯৮ হাজার ৯৪৯, স্পেনে সেরে উঠেছে এক লাখ ৯৬ হাজার ৯৫৮ জন, ইতালিতে এক লাখ ৯১ হাজার ৯৪৪, পেরুতে এক লাখ ৮৯ হাজার ৬২১, জার্মানিতে এক লাখ ৮১ হাজার ৩০০, তুরস্কে এক লাখ ৭৯ হাজার ৪৯২, মেক্সিকোতে এক লাখ ৪৭ হাজার ২০৫, সৌদি আরবে এক লাখ ৪৩ হাজার ২৫৬, পাকিস্তানে এক লাখ ২৫ হাজার ৯৪, কাতারে ৯০ হাজার ৩৮৭, চীনের মূল ভূখণ্ডে ৭৮ হাজার ৫১৬ এবং ফ্রান্সে ৭৭ হাজার ৬০ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে।

এ ছাড়া দক্ষিণ আফ্রিকায় ৯১ হাজার ২২৭, বাংলাদেশে ৭০ হাজার ৭২১, কানাডায় ৬৮ হাজার ৯৯০ জন, সিঙ্গাপুরে ৪০ হাজার ১১৭, সংযুক্ত আরব আমিরাতে ৩৯ হাজার ৮৫৭, সুইজারল্যান্ডে ২৯ হাজার ২০০, কুয়েতে ৩৯ হাজার ৯৪৩, দক্ষিণ কোরিয়ায় ১১ হাজার ৮৩২, মালয়েশিয়ায় আট হাজার ৪৬১ জন এবং অস্ট্রেলিয়ায় সাত হাজার ৩৫৫ জন সুস্থ হয়ে উঠেছে।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহান শহরে প্রথম দেখা দেওয়া প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস বাংলাদেশসহ বিশ্বের ২১৩টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে এবং পাঁচ লাখ এক হাজার ২৯৮ জন রোগী মারা গেছে।

গত ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।