কাশ্মীর ইস্যুতে সরব ব্রিটিশ এমপিকে আসতেই দিল না ভারত

প্রকাশিতঃ ১২:৩৮ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০

ভারতে ঢুকতে দেয়া হয়নি জম্মু ও কাশ্মীরে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের প্রতিবাদে সরব ব্রিটিশ লেবার এমপি ডেবি আব্রাহামসকে। দিল্লি বিমানবন্দর থেকে তাকে দুবাই ফেরত পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে।

মঙ্গলবার লেবার পার্টির এই এমপিকে দিল্লি বিমানবন্দরে আটকে দেয়া হয়। তাকে বলা হয়েছে, তার ই-ভিসা বাতিল হয়ে গেছে।

এ ঘটনার পর তিনি এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ‘অপরাধীর মতো আচরণ’ করা হয়েছে তার সঙ্গে। তবে ভারতের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, উপযুক্ত ভিসা ছিল না ডেবির কাছে।

জানা গেছে, আজ সকাল ৮টা ৫০ মিনিটের দিকে দিল্লিতে অবতরণ করেন ডেবি। তাকে জানানো হয়, গত বছর অক্টোবরে পাওয়া তার ই-ভিসা বাতিল হয়ে গেছে।

ডেবি বলেছেন, বাকি যাত্রীদের সঙ্গে আমি অভিবাসন কর্মকর্তাদের সামনে আমার ছবি, ই-ভিসা ও অন্য সব তথ্য নিয়ে দাঁড়িয়ে ছিলাম। তারা আমার ছবিও তুলেছিলেন। তারপর সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা স্ক্রিনে আমার ছবি দেখে হঠাৎ মাথা ঝাঁকালেন। বললেন, ভিসা বাতিল হয়ে গেছে। এই বলে উনি ১০ মিনিটের জন্য উধাও হয়ে যান।

ডেবি আরও বলেন, ফিরে আসার পর তিনি আরও উদ্ধত এবং আক্রমণাত্মক হয়ে আমার সঙ্গে চিৎকার করে কথা বলতে শুরু করেন।

এরপর আলাদা একটি জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয় এমপিকে। সেখানে বসতে বলায় তিনি আপত্তি জানান। বিষয়টি ভারতে বসবাসকারী তার এক আত্মীয়কেও জানান। ওই আত্মীয়ের মাধ্যমেই বার্তা যায় ব্রিটিশ হাইকমিশনারের কাছে। তারপরও কিছু করা যায়নি বলে দাবি ডেবির।

ডেবির বক্তব্য, রাজনীতিতে এসেছি সামাজিক ন্যায় ও মানবাধিকার সুনিশ্চিত করতে। অন্যায় এবং নিগ্রহ চললে আমি নিজের সরকাসহ সব জায়গায় চ্যালেঞ্জ জানাতেই থাকব।

ব্রিটেনে কাশ্মীর সংক্রান্ত ‘অল পার্টি পার্লামেন্টারি গ্রুপ’ এর চেয়ারপারসন ডেবি।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ