কুড়িগ্রামে শীত জেঁকে বসেছে

প্রকাশিতঃ ৮:০০ অপরাহ্ণ, রবি, ১২ জানুয়ারি ২০

রেজাউল করিম রেজা, কুড়িগ্রাম: কুড়িগ্রামে রোববার দেশে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ৯ দশমিক ৫ ডিগ্রি তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয়েছে। টানা শীতের কারণে হাসপাতালগুলোতে শিশু ও বয়স্ক রোগীদের ভীড়ও বেড়ে গেছে। শীতের প্রকোপে বোরো বীজতলা ও আলু ক্ষেতে ক্ষতির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। আগুন জ্বালিয়ে শীত নিবারণ করছে কুড়িগ্রামবাসী।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের সহকারি কর্মকর্তা বিমল দে সময় জার্নালকে জানান, টানা শীতের কারণে কিছু কিছু এলাকায় বোরো ও আলু ক্ষেতের কিছুটা ক্ষতি হলেও দিনে রোদের কারণে ক্ষতিটা পুষিয়ে আনা সম্ভব হচ্ছে।

অপরদিকে গত দুদিন থেকে এমন পরিস্থিতি বিরাজ করছে। কুড়িগ্রাম জেনালের হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত আবাসিক মেডিকেল অফিসার পুলক কুমার সরকার জানান, রোববার (১২ জানুয়ারি) ৩৭জন ডায়েরিয়া রোগীর মধ্যে ৩৬জনই শিশু। প্রতিদিন গড়ে ৩০ থেকে ৪০জন শিশু হাসপাতালে চিকিৎসা নিতে আসছে।

কুড়িগ্রামের রাজারহাট কৃষি আবহাওয়া অফিসের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সুবল চন্দ্র সরকার জানান, আরও কয়েকদিন আবহাওয়া এমন থাকবে। রোববার কুড়িগ্রামে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় ৮ দশমিক ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসে।

জেলা প্রশাসক মোছা. সুলতানা পারভীন সময় জার্নালকে বলেন, শীতকে মোকাবেলা করার জন্য সব ধরণের প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে ৫৯ হাজার ১৪টি কম্বল বিতরণের পর আরও ২ হাজার কম্বল পাওয়া গেছে। এছাড়াও কম্বল কেনার জন্য ১০ লাখ টাকা, শিশু পোষাক কেনার জন্য ৩ লাখ টাকা এবং শিশু খাদ্যের জন্য আরও ১ লাখ টাকা পাওয়া গেছে।

সময় জার্নাল/আরইউটি/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ