খুলনায় করোনা উপসর্গ নিয়ে বৃদ্ধার মৃত্যু

প্রকাশিতঃ ১১:৩০ পূর্বাহ্ণ, মঙ্গল, ৭ এপ্রিল ২০

সময় জার্নাল ডেস্ক : খুলনায় করোনা ভাইরাসের উপসর্গ নিয়ে সালেহা বেগম নামে ষাটোর্ধ এক বৃদ্ধার মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল ছয়টার দিকে রূপসা উপজেলার নৈহাটী ইউনিয়নের দেবীপুর গ্রামের নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। তিনি ওই গ্রামের ইসমাইল হোসেনের স্ত্রী।

স্থানীয় সূত্র জানায়, সালেহা বেগম ১০-১২ দিন আগে তার ছেলের ঢাকার বাসায় জ্বরসহ সর্দি-কাঁশিতে আক্রান্ত হন। ওই অবস্থায় তিনি তার নাতী রাসেলকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে ফেরেন। তবে, তার অসুস্থতার কথা গ্রামবাসী জানতে পারেনি।

রূপসা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আনিসুর রহমান জানান, ওই বৃদ্ধা এক সপ্তাহ আগে তার ২২ বছর বয়সী নাতি রাসেলের সঙ্গে ঢাকা থেকে গ্রামের বাড়িতে আসেন। তিনি তথ্য গোপন করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে চিকিৎসা নেন। মঙ্গলবার সকাল ছয়টার দিকে তিনি বাড়িতে মারা যান।

তিনি জানান, মৃত বৃদ্ধার নাতীকে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে।

রূপসা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাসরিন আকতার জানান, যারা ওই নারীর সংস্পর্শে এসেছিলেন তাদের তালিকা তৈরির কাজ চলছে। তাদেরকে দ্রুত হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানোসহ লক ডাউনের কাজ চলছে।

সিভিল সার্জন ডা. সুজাত আহমেদ জানান, মৃত বৃদ্ধা ও তার নাতির নমুনা সংগ্রহ করে খুলনা মেডিক্যাল কলেজের পিসিআর ল্যাবে করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করা হবে। যতক্ষণ পর্যন্ত তাদের করোনার রিপোর্ট পাওয়া না যাবে ততক্ষণ পর্যন্ত প্রশাসনকে ওই এলাকা লকডাউন করে রাখতে বলা হয়েছে। এছাড়া ওই নারীর সংস্পর্শে যারা এসেছে তাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ