খুলনায় কোরবানির পশু কেনাবেচার অ্যাপ উদ্বোধন

প্রকাশিতঃ ৫:২৪ অপরাহ্ণ, বুধ, ৮ জুলাই ২০

সময় জার্নাল ডেস্ক : করোনা ভাইরাস সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে অনলাইনে কোরবানির পশু কেনাবেচার জন্য চালু করা হয়েছে ‘কোরবানি হাট খুলনা’ নামের একটি মোবাইল অ্যাপ। খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এক অনুষ্ঠানে বুধবার দুপুরে সিটি করপোরেশনের মেয়র তালুকদার আবদুল খালেক অ্যাপটির উদ্বোধন করেন।

জুম অ্যাপের মাধ্যমে ঢাকা থেকে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে যোগ দেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

আসন্ন ঈদুল আজহা উপলক্ষে সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্য সুরক্ষার কথা বিবেচনা করে খুলনা সিটি করপোরেশন ও প্রাণিসম্পদ অফিসের সহযোগিতায় খুলনা জেলা প্রশাসন অ্যাপটি তৈরি করেছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘করোনাকালীন এই পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কোনো বিকল্প নেই। করোনার ফলে সারাবিশ্বে একদিকে যেমন অনেক মানুষ কাজ হারাচ্ছে, তেমনি তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর অনেক নতুন পেশা ও কর্মসংস্থানেরও সৃষ্টি হচ্ছে। দেশের এই পরিস্থিতিতে খুলনা জেলা প্রশাসনের এই উদ্ভাবনী উদ্যোগটি প্রশংসনীয়। অনলাইনে কোরবানি পশু বিক্রির এ সুযোগ সৃষ্টি হওয়ায় অনেক তরুণ খামারি ন্যায্যমূল্যে তাদের গরু-ছাগল বিক্রি করতে পারবেন।’

মানুষ যাতে প্রতারিত না হয় সেজন্য খুলনা জেলা প্রশাসন, প্রাণিসম্পদ অফিস এবং পুলিশ বিভাগের সমন্বয়ে অনলাইনে কোরবানি পশু ক্রয়-বিক্রয়ের কার্যক্রম তদারকির পরামর্শ দেন তিনি। এছাড়া প্রযুক্তিনির্ভর এ সেবাকে সাধারণ মানুষের কাছে জনপ্রিয় করতে ইউনিয়ন পর্যায়ের ডিজিটাল সেন্টারগুলোকে কাজে লাগানোরও আহ্বান জানান প্রতিমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে জুম অ্যাপের মাধ্যমে আরও অংশ নেন- তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব (সমন্বয় ও সংস্কার) মো. কামাল হোসেন ও খুলনার বিভাগীয় কমিশনার ড. মু. আনোয়ার হোসেন হাওলাদার।

Qurbani Hat Khulna অ্যাপ ছাড়াও qurbanihatkhulna.com ওয়েবসাইটেও পশু ক্রয়-বিক্রয়ের সুবিধা রয়েছে। খামারিরা অ্যাপটিতে ইতোমধ্যে ৩০ হাজারেরও বেশি কোরবানির পশু নিবন্ধিত করেছেন।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন। অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার সরদার রকিবুল ইসলাম, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মো. ইকবাল হোসেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) জিয়াউর রহমান, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মো. ইউসুফ আলী, জেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা এস এম আউয়াল হক, খুলনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এস এম নজরুল ইসলাম, খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, ক্রেতারা অনলাইন ও মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমে গবাদি পশুর মূল্য পরিশোধ করতে পারবেন। ক্রয়কৃত গবাদি পশু ক্রেতার বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা রয়েছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।