খেলার ফাঁকে বৈঠক করবেন শেখ হাসিনা-মমতা

প্রকাশিতঃ ১২:০৩ অপরাহ্ণ, শুক্র, ২২ নভেম্বর ১৯

নিউজ ডেস্ক: বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে টেস্ট ম্যাচ দেখতে সরকারি সফরে কলকাতায় যাওয়া প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠকে বসছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

ইডেনে শুক্রবার প্রথম দিনরাত্রির টেস্ট ম্যাচের উদ্বোধনের এক ফাঁকে তাদের মধ্যে এই বৈঠক হবে বলে সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদেনে বলা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার কলকাতায় মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিকদের জানান, যে হোটেলে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী থাকবেন, সেখানেই তাদের মধ্যে একটি সৌজন্য বৈঠক হবে।

তার কথায়, ভারত-বাংলাদেশ দিন-রাত্রির টেস্ট ম্যাচ দেখতে শহরে আসছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সময় মাঠে উপস্থিত থাকা ছাড়াও, সন্ধ্যা ৬টায় আমাদের মধ্যে বৈঠক হবে।

এনডিটিভি বলছে, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ভাল সম্পর্ক রয়েছে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার। তারা একে অপরকে শ্রদ্ধা করেন।

বৃহস্পতিবার ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, শুক্রবারের দিনরাত্রির ম্যাচ দেখবেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে শেখ হাসিনার বৈঠক নিয়ে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর দফতর বা পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রীর দফতর, কেউ কোনও তথ্য জানায়নি।

২০১১ সালের সেপ্টেম্বর থেকে নয়াদিল্লি ও ঢাকার মধ্যে তিস্তা চুক্তি স্বাক্ষরিত করার যে চেষ্টা চলছে, তা নিয়েও আলোচনা হবে কিনা, জানা যায়নি।

তিস্তা চুক্তির মধ্যে অন্যতম রয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তিস্তা চুক্তির ফলে রাজ্যের ক্ষতি হবে বলে আপত্তি জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা। ২০১১ সালের সেপ্টেম্বরে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের বাংলাদেশ সফরেই স্বাক্ষরিত হওয়ার কথা ছিল তিস্তা চুক্তি। তবে মুখ্যমন্ত্রীর আপত্তিতেই তা ভেস্তে যায়। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রীর প্রতিনিধি দল থেকে বাদ পড়েন।

চলতি মাসে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী কলকাতায় সফরে আশা প্রকাশ করেন, ক্রিকেট ম্যাচে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাক্ষাতে এ এই সমস্যা মিটে যাবে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ