গোপালগঞ্জে করোনায় নতুন আক্রান্ত ৯, মোট ৩০

প্রকাশিতঃ ৫:১৯ অপরাহ্ণ, সোম, ২০ এপ্রিল ২০

দুলাল বিশ্বাস, গোপালগঞ্জ : জেলায় ৬ পুলিশ সদস্য ও এক দম্পতিসহ গত ৪৮ ঘন্টায় ৯ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। এ নিয়ে গোপালগঞ্জ জেলায় মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ জন। সিভিল সার্জন ডা. নিয়াজ মোহাম্মদ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

আজকের ৬ জন মিলে এ পর্যন্ত কোয়ারেন্টাইনে থাকা মুকসুদপুর থানার ১৬ পুলিশ সদস্য, গোপালগঞ্জ সদর উপজেলায় নতুন ১জন মিলে ৪ জন, টুঙ্গিপাড়ায় আরো এক দম্পতি মিলে ৫ জন, কাশিয়ানীতে ৪ জন (স্থিতিশীল) ও কোটালীপাড়া উপজেলায় ১জন (স্থিতিশীল) করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

গোপালগঞ্জ জেলা থেকে মোট ৩৭৯ জনের নমুনা পাঠানো হয়। এ পর্যন্ত আইইডিসিআর থেকে পাঠানো ২৮৯ জনের ফলাফলে মোট আক্রান্ত ৩০ জন। আক্রান্তদের সংশ্লিষ্ট উপজেলা আইসোলেশন সেন্টারে রেখে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন।

মুকসুদপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মাহমুদুর রহমান জানান, হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ১২ পুলিশ সদস্যের নমুনা গত ১৮ এপ্রিল আইইডিসিআরে পাঠানো হয়েছিলো। তাদের মধ্যে ৬ জনের শরীরের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে মুকসুদপুর থানার ১৬ পুলিশ সদস্যের শরীরে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। গত ১১ এপ্রিল মুকসুদপুর থানার এক কনস্টেবল করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর ওই থানার পুলিশ সদস্যের সবাইকে কোয়ারেন্টিনে নেয়া হয় বলেও জানান ওই কর্মকর্তা।

আপরদিকে গত ৯ এপ্রিল টুঙ্গিপাড়ায় এক দম্পতি শরীরে করোনা শনাক্তের মধ্য দিয়ে গোপালগঞ্জে প্রথম করোনার অস্তিত্ব মেলে। সেই টুঙ্গিপাড়া উপজেলাতেই আবারও এক দম্পতির করোনা পজেটিভের খবর এলো সোমবার। এ নিয়ে টুঙ্গিপাড়ায় দুই দম্পত্তি মিলে মোট ৫জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে।

টুঙ্গিপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. জসিম উদ্দিন জানান, এ উপজেলায় নতুন আক্রান্ত স্বামী-স্ত্রী নারায়নগঞ্জ থেকে পালিয়ে ডুমুরিয়া গ্রামের বাড়িতে আসেন।

এছাড়া নারায়নগঞ্জ থেকে পালিয়ে গোপালগঞ্জ সদরের গোলাবাড়িয়া গ্রামের নিজ বাড়িতে এসে করোনায় আক্রান্ত হন এক ব্যক্তি। ওই রোগীর সংস্পর্শে এসে তার পরিবারের এক সদস্য নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন সিভিল সার্জন।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ