চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের সংঘর্ষ, আহত ৫

প্রকাশিতঃ ৭:৪৬ অপরাহ্ণ, শনি, ৩০ নভেম্বর ১৯

চবি প্রতিনিধি: পূর্ব ঘটনার জেরে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় (চবি) শাখা ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত ৫ জন। আহতরা হলেন–গনিত বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী সুইডেন, ইসলাম শিক্ষা বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী শেখ জাহিদ, ইতিহাস বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মো. রিয়াদ, গনিত বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী তানজিম সাদমান, রাজনীতি বিজ্ঞান বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী মো. রিয়াদ।

২৯ নভেম্বর রাত আনুমানিক ১১ টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ আব্দুর রব হলে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। বিবাদমান গ্রুপ দুইটি শাখা ছাত্রলীগের বর্তমান সভাপতি রেজাউল হক রুবেলে ও সাবেক উপ-দপ্তর সম্পাদক মিজানুর রহমান বিপুলের অনুসারী।

শহীদ আব্দুর রব হলে ঘটনার সূত্রপাত হলেও পরে তা সোহরাওয়ার্দী হল মোড় পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ে। এসময় একটি গ্রুপ সোহরাওয়ার্দী হল মোড়ে এবং আরেকটি গ্রুপ শাহ আমানত হলের সামনে অবস্থান করে। এক পর্যায়ে তাদের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ইট-পাটকেল ছোড়াছোড়ি হয়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ১১টার দিকে শহীদ আবদুর রব হলে বিপুলের অনুসারী কর্মীদের সাথে রুবেলের কর্মীদের মারধরের ঘটনা ঘটে। এ খবর ছড়িয়ে পড়লে এ.এফ রহমান, আলাওল ও সোহরাওয়ার্দী হলের কর্মীরা জড়ো হয়ে সোহরাওয়ার্দী হলের সামনে এবং রুবেলের কর্মীরা শাহ আমানত হলের সামনে অবস্থান নেয়। এসময় দুই পক্ষে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ও ব্যাপক ইট-পাটকেল নিক্ষেপ হয়। এমনকি কাচের বোতল নিক্ষেপ করতেও দেখা যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ দুই পক্ষকে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

এর আগে সহকারী প্রক্টর হানিফ মিয়া রব হল থেকে মেডিকেল সেন্টারে যাওয়ার পথে পরিবহন দপ্তরের সামনে তার গাড়িতে হামলার চেষ্টা করে ছাত্রলীগের বিবাদমান একটি পক্ষের কর্মীরা। যদিও কোন ধরনের ক্ষয়ক্ষতি হয়নি।

জানা গেছে গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে শহীদ আবদুর রব হলে টিভি রুমে ছাত্রলীগের বিবাদমান দুটি পক্ষের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় উভয় পক্ষের মধ্যে মীমাংসাও হয়।

সময় জর্নাল

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ