চাঁদপুরে ইউএনও করোনায় আক্রান্ত

প্রকাশিতঃ ২:৪২ অপরাহ্ণ, বুধ, ২৯ এপ্রিল ২০

চাঁদপুর জেলা প্রতিনিধি : করোনা রোগীর বাড়ি লকডাউন শেষে চাঁদপুরের হাজীগঞ্জ উপজেলার নির্বাহি কর্মকর্তা (ইউএনও) জানালেন নিজেও করোনায় আক্রান্ত। বুধবার দুপুরে ওই রিপোর্ট পজেটিভ বলে নিশ্চিত করেন চাঁদপুরের সিভিল সার্জন সিভিল সার্জন ডা. মো. সাখাওয়াত উল্লাহ। এমন খবর ছড়িয়ে পড়লে পুরো হাজীগঞ্জ উপজেলায় আতংক বিরাজ করে।

সিভিল সার্জেন জানান, হাজীগঞ্জ উপজেলার শীর্ষ এক কর্মকর্তার করোনা পজেটিভ এসেছে। ঢাকার শিশু হাসপাতালে টেস্ট করা হলে রিপোর্ট পজেটিভ আসে। গত ২৭ এপ্রিল সোমবার তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এ নিয়ে চাঁদপুর জেলায় করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ১৭জন।

জানা গেছে, বুধবার সকালে হাজীগঞ্জ বাজারে শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকের ভবনে লকডাউন করেন নির্বাহী কর্মকর্তা ও স্থানীয় প্রশাসন। ওই ভবনের এক ব্যাংক কর্মকর্তার করোনা পজেটিভ আসে। এদিকে প্রশাসনিক ওই শীর্ষ কর্মকর্তা সিভিল সার্জেনের পরমার্শ অনুযায়ী চিকিৎসা নিবেন বলেন বিশ্বস্থ সূত্রে জানায়।

হাজীগঞ্জ উপজেলা প্রশাসনের শীর্ষ কর্মকর্তা করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এইচএম শোয়েব আহম্মেদ চিশতী বলেন, আক্রান্ত ব্যাক্তি একজন ব্যাংক কর্মকর্তা। তিনি ঢাকায় থাকতেন। গত ১৮ এপ্রিল হাজীগঞ্জে আসেন। এরপরে তার শশুর মারা যাওয়ার পরে তিনি চট্টগ্রামে যান। সেখানে থেকে এসে ২৭ এপ্রিল করোনা আছে এমন সন্দেহে নিজ উদ্যোগে আমাদের কাছে পরীক্ষা দেন। আজ ২৯ এপ্রিল তার রিপোর্ট আসলে জানতে পারি পজেটিভ। তবে তার কোন উপসর্গ নেই। তিনি এখন বাড়িতেই আছেন। প্রয়োজন হলে তাকে আইসোলেশনে নেয়া হবে। এই বিষয়ে আলোচনা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, চাঁদপুর সদর ও উপজেলাসহ করোনায় আক্রান্ত ছিলেন ১৪ জন। নতুন করে রিপোর্ট এসেছে ৩৯ জনের। এর মধ্যে ইউএনও এবং ব্যাংক কর্মকর্তার রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। চাঁদপুর সদর উপজেলার বালিয়া ইউনিয়নের বাঘড়া বাজারের দক্ষিণ পাশে তালুকদার বাড়ী সংলগ্ন খালপাড়া এলাকার বাসিন্দা নিহত খোরশেদ আলম (৫০) এর রিপোর্ট মঙ্গলবার (২৮ এপ্রিল) পাওয়া গেছে। বিষয়টি চাঁদপুর সদর উপজেলা প্রশাসন, মডেল থানা পুলিশ ও উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানার পরে ওই বাড়ীটি লকডাউন করে দিয়েছেন এবং খোরশেদ আলমের পরিবারের ৩ জনের করোনা নমুনা পরীক্ষা সংগ্রহ করেছেন।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ