চিপসের প্যাকেটে শিশু-খেলনা না ঢোকাতে হাইকোর্টে রিট

প্রকাশিতঃ ১:৪৭ অপরাহ্ণ, সোম, ৪ নভেম্বর ১৯

আদালত ডেস্ক: চিপসসের প্যাকেটের ভেতরে শিশু-খেলনা না ঢোকাতে হাইকোর্টে রিট করা হয়েছে। একইসঙ্গে খেলনাযুক্ত যেসব চিপস বাজারজাত করা হয়েছে তা প্রত্যাহারে চাওয়া হয়েছে নির্দেশনা।

সোমবার (৪ নভেম্বর) এ রিট দায়েরের কথা জানিয়েছেন আবেদনকারী আইনজীবী মো. মনিরুজ্জমান।

আইনজীবী জানান, বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ আবেদনের ওপর শুনানি হতে পারে।

আবেদনে চিপসের প্যাকেটের ভেতরে শিশু-খেলনা না ঢোকাতে শিশুখাদ্য উৎপাদক কোম্পানিদের কেন নির্দেশ দেওয়া হবে না- এ মর্মে রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছে। পাশাপাশি যারা খেলনাসহ চিপস বাজারজাত করছে সেসব প্যাকেট প্রত্যাহার করতে চাওয়া হয়েছে নির্দেশনা।

মো. মনিরুজ্জামান বলেন, অ্যাবসেন্ট মাইন্ডে বাচ্চারা যখন চিপস খায় তখন খেলনাটা তাদের পেটে ঢুকে যায়। এটা খুবই অ্যালার্মিং। প্রতিবেশী দেশে দু’টি বাচ্চা মারা গেছে বলে আমরা প্রতিবেদন পেয়েছি। আমরা আশংকা করছি, আমাদের দেশের কোনো শিশু চিপসের প্যাকেটে যে প্ল্যাস্টিকের খেলনা থাকে সেটা খেয়ে ফেললে হয়তো এরকম পরিস্থিতি হতে পারে। প্রিভেনশন ইজ বেটার দ্যান কিওর। এ কারণে রিট করেছি।

রিটে বিবাদী করা হয়েছে বাণিজ্য সচিব, স্বরাষ্ট্র সচিব, এম এম ইস্পাহানী লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও হেড অব মার্কেটিং, ইনগ্রিন লিমিটেডের চেয়ারম্যান ও হেড অব মার্কেটিংকে।

তিনি বলেন, এখন পর্যন্ত আমরা ইনগ্রিনের ডরে ডরে চিপসসহ আরও একটি কোম্পানির চিপসের প্যাকেটে মূলত খেলনাগুলো পেয়েছি। হয়তো আরও আছে, যেগুলো আমার অগোচরে। যেন কোনো কোম্পানি চিপসের প্যাকেটে খেলনা দিয়ে মার্কেটিং করতে না পারে সেজন্য এ আবেদন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ