চুয়াডাঙ্গায় চাঁদাবাজীর অভিযোগে কথিত ৫ সাংবাদিক আটক

প্রকাশিতঃ ৪:০২ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ১৭ ডিসেম্বর ১৯

চুয়াডাঙ্গা প্রতিনিধি: চুয়াডাঙ্গায় চাষের জমিতে অবৈধভাবে মাটিকাটার অভিযোগ এনে সংবাদ প্রকাশসহ মাটিকাটার স্কেবেটার আটকের ভয় দেখিয়ে গণ চাঁদাবাজীর অভিযোগে কথিত ৫ সাংবাদিককে আটক করে পুলিশে দিয়েছে স্থানীয়রা।

সোমবার সরজগঞ্জ বাজারের একটি চায়ের দোকানে দাবীকৃত চাঁদার টাকা নিতে গেলে তাদেরকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় চাঁদাবাজীর শিকার পুরাতন ভান্ডারদোহা গ্রামের পিনু বাদী হয়ে রাতেই গ্রেপ্তারকৃতদের নামে একটি চাঁদাবাজী মামলা দায়ের করেন।

আটককৃত কথিত ৫ সাংবাদকি হলেন- চুয়াডঙ্গা শহরের জাফর পুরের মৃত শামসুল হকের ছেলে নজরুল ইসলাম(৩৬), আরামপাড়ার ইদ্রিস আলীর ছেলে সাব্বির হোসেন (২৬), বাগান পাড়ার খোকন মিয়ার ছেলে আশিক(২৪), জ্বিনতলা মল্লিক পাড়ার মৃত ইছাহক আলীর ছেলে আরিফ (৪৫) ও মালো পাড়ার মৃত কালু খার ছেলে সজিব আকবর(৫০)।

এজাহার সুত্রে জানা যায়, চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার পুরাতন ভান্ডারদোহা গ্রামের শহীদ মালিথার ছেলে পিনু গত ২ ডিসেম্বর মাটিকাটার স্কেবেটার দিয়ে চাষের জমি সমান করছিলেন। এ সময় আশিক ও সাব্বির জমির মালিক পিনুকে সংবাদ প্রকাশসহ সদর উপজেলা নির্বহী অফিসারের ভয় দেখিয়ে ৬০ হাজার টাকা দাবী করেন। টাকা না দিলে তারা এই মাটিকাটার (ভেকু) স্কেবেটারটি আটক করে নিয়ে যাবেন বলে হুমকি দেন। পরে পিনু বধ্য হয়ে ৩৫ হাজার টাকা দিলে চলে জায় তারা।

গত ১৪ ডিসেম্বর এই চক্রটি সিন্দুরীয়া গ্রামের মৃত জব্বার কাজীর ছেলে মনোয়ার হোসেনের কাছেও একই ভাবে ভয় ভীতি দেখিয়ে ৪০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয়।

এছাড়াও এই চক্রটি গত ১৫ ডিসেম্বর ধুতুরহাট গ্রামের ইউনুছ আলীর ছেলে ইসমাইল হোসেনের কাছ থেকে ১৫ হাজার টাকা হাতিয়ে নেন।

অপরদিকে, সোমবার কথিত এই ৫ সাংবাদিক পৌর শহরের বাগান পাড়ার শহীদ হোসেনের ছেলে তানজিলুর রহমানের কাছে ১০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করেন। একই সাথে দাবীকৃত চাঁদার টাকা সদর উপজেলার সরজগঞ্জ বাজারে জনৈক জামালের চায়ের দোকানে দিয়ে আসতে বলেন। এ সময় স্থানীয়রা ওই চায়ের দোকান থেকে কথিত ৫ সাংবাদিককে আটক করে সরজগঞ্জ ফাঁড়ি পুলিশের হাতে তুলে দেয়। পরে আটককৃতদের সদর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। এ ঘটনায় সোমবার রাতে চাঁদাবাজীর শিকার পুরাতন ভান্ডারদোহা গ্রামের পিনু বাদী হয়ে একাধিক চাঁদাবাজীর অভিযোগে গ্রেপ্তারকৃতদের নামে চাঁদাবাজী মামলা দায়ের করেন।

এদিকে, চাঁদাবাজীর অভিযোগে কথিত ৫ সাংবাদিককে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ আবু জিহাদ।

মঙ্গলবার গ্রেপ্তারকৃতদের চাঁদাবাজী মামলায় আদালতে সোপর্দ করা হতে পারে বলে জানায় সদর থানার পুলিশ।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ