চুয়াডাঙ্গায় বাস চলাচল শুরু হয়নি, ট্রেনই ব্যবসায়ীদের ভরসা

প্রকাশিতঃ ৫:২০ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ২১ নভেম্বর ১৯

চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রতিনিধি: নতুন ‘সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮’ বাতিলের দাবি নিয়ে চুয়াডাঙ্গা এখনো সব রুটে বাস ও ট্রাক চলাচল শুরু হয়নি। এতে চরম ভোগান্তিতে রয়েছেন কাঁচামাল ব্যবসায়ী ও সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের চাকরিজীবীসহ সাধারণ যাত্রীরা। ট্রেনের উপর ভরসা করেই চলাচল করছেন ব্যবসায়ীসহ যাত্রীরা।

বৃহস্পতিবার ( ২১ নভেম্বর) সকাল থেকে চুয়াডাঙ্গা কোন রুটে দূরপাল্লার গাড়ি ছেড়ে যায়নি। চুয়াডাঙ্গা বাসটার্মিনাল, বাসস্ট্যান্ড ও পরিবহর কাউন্টারগুলোতে আজও বাসের অপেক্ষায় অনেক যাত্রীকে ফিরে যেতে দেখা গেছে।

চুয়াডাঙ্গা জেলা বাস-ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি এম. জেনারেল ইসলাম জানান, বুধবার রাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে পরিবহন ও শ্রমিকদের বৈঠকে ধর্মঘট প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। কিন্ত চুয়াডাঙ্গাতে এখনো ধর্মঘট প্রত্যাহারের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

এদিকে, যাত্রীবাহী বাসের সঙ্গে বুধবার ট্রাক চলাচল বন্ধ করে দেয়া হয়। ট্রাক বন্ধ থাকায় কাঁচামাল ব্যবসায়ীরা ভরসা হয়ে দাঁড়ায় ট্রেন। নিদিষ্ট স্থানে ট্রেনযোগে কাচাঁমাল পৌঁচ্ছে দিচ্ছে। যার কারণে ট্রেনগুলোতে যাত্রীদের চরম ভোগান্তিতে পড়তে হচ্ছে।

চুয়াডাঙ্গা কয়েকজন কাঁচামাল ব্যবসায়ী জানান, গত মঙ্গলবার ট্রাক, ও কাভার্ডভ্যান চলাচল বন্ধের ঘোষণার পর বুধবার সকাল থেকে চুয়াডাঙ্গা জেলায় এসব যানবাহন চলাচল বন্ধ করে দেয়। এতে পণ্য পরিবহন নিয়ে নতুন জটিলতা সৃষ্টি হয়। বিশেষ করে রাজধানী ঢাকাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে সবজি পরিবহন বন্ধ হয়ে পড়ে। এতে বিপাকে পড়েন সবজিচাষি ও ব্যবসায়ীরা। তাই ট্রেনযোগে এসব কাঁচামাল নিদিষ্টস্থানে পৌঁচ্ছে দিচ্ছে।

জেলা বাস-মিনিবাস মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক এ নাসির আহাদ জোয়ার্দ্দার জানান, বাস চলাচলের বিষয়ে কেন্দ্রীয় কোনো সিদ্ধান্ত আমাদের জানানো হয়নি। সিদ্ধান্ত হলে বাস চলাচল শুরু করা হবে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ