জরিমানা দিয়ে কলকাতা থেকে দেশে ফিরলেন সাইফ হাসান

প্রকাশিতঃ ৬:৫৭ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ২৮ নভেম্বর ১৯

স্পোর্টস ডেস্ক: ভিসার মেয়াদ উত্তীর্ণ হয়ে যাওয়ার পরও ভারতে থাকায় জরিমানা গুণতে হলো ইডেনে পিঙ্ক বল টেস্ট খেলতে যাওয়া জাতীয় দলের ক্রিকেটার সাইফ হাসানকে। ভিসার মেয়াদ পেরিয়ে যাওয়ায় তাকে বাংলাদেশ বিমানেই উঠতে দেয়া হয়নি। অবশেষে নিয়মানুযায়ী জরিমানা দিয়ে বুধবার সন্ধ্যায় ঢাকার বিমানে উঠেন ইডেন টেস্টে বাংলাদেশ দলের সঙ্গে আসা ব্যাক-আপ এই ওপেনার।

জরিমানার অঙ্কটা নেহাত কম নয়। ২১ হাজার ৬০০ রুপি জরিমানা গুণতে হয়েছে সাইফকে। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ২৫ হাজার ৫০০ টাকা।

রোববারই ইডেনে ঐতিহাসিক ডে-নাইট টেস্ট শেষ হয়েছে। তিন দিনেই হেরে যায় মুমিনুল হকরা। রোববার টেস্টের তৃতীয় দিন প্রথম ঘণ্টার মধ্যেই ইনিংসে ৪৬ রানে হেরে ০-২ সিরিজ হারে। ইন্দোরে সিরিজের প্রথম টেস্টেও ইনিংসে হারে বাংলাদেশ।

ইডেনে পিঙ্ক বল টেস্টে তিন দিনে শেষ হয়ে যাওয়ায় অনেক ক্রিকেটারই আরও দু’দিন কলকাতায় থেকে যান। বুধবার বাংলাদেশ ফেরার জন্য কলকাতা বিমানবন্দরে রওনা হন সাইফ হাসান। কিন্তু দু’দিন আগেই হাসানের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। ফলে নিয়ম অনুযায়ী জরিমানা দিয়ে এদিন ঢাকার বিমান ধরেন এই ক্রিকেটার।

বাংলাদেশি ডেপুটি হাই-কমিশনার তৌফিক হাসান বলেন, দু’দিন আগে সাইফ হাসানের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যায়। কিন্তু বিমানবন্দরে গিয়ে ও এটা বুঝতে পারে। ফলে ওকে বিমানে উঠে দেয়া হয়নি। নিয়ম অনুযায়ী ওকে জরিমানা দিতে হয়। পরে ভারতীয় হাইকমিশন ভিসার বিষয়টি দ্রুত মিটিয়ে দেয়া।

বাংলাদেশের অনেক ক্রিকেটারই অবশ্য রোববার ম্যাচ হারার পর ঢাকার বিমান ধরেছিলেন। কিন্তু দলের বাকি ক্রিকেটারদের সঙ্গে সোমবার কলকাতায় বিমানবন্দের রওনা দিয়েছিলেন হাসান। কিন্তু সেখানে গিয়ে দেখতে পান তার ভিসার মেয়াদ শেষ হয়েছে। ফলে তাকে আরও দু’দিন কলকাতায় থেকে যেতে হয়। অবশেষে জরিমানা দিয়ে বুধবার সন্ধ্যায় ঢাকার বিমানে উঠেন বাংলাদেশের এই তরুণ ওপেনার। দেশের হয়ে এখনও অভিষেক না-হলেও ৩৭টি প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন তরুণ এই ব্যাটসম্যান।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ