জয়পুরহাটে করোনা উপসর্গে ইটভাটা শ্রমিকের মৃত্যু

প্রকাশিতঃ ১২:৩৫ পূর্বাহ্ণ, রবি, ২৪ মে ২০

জয়পুরহাট প্রতিনিধি : জেলার সদর উপজেলার ভাদসা ইউনিয়নের ছিটহরিপুর (দেবরাইল ) গ্রামে করোনা উপসর্গ (জ্বর ও শ্বাস কষ্ট) নিয়ে আলম হোসেন (৪২) নামে এক ইটভাটা শ্রমিক মারা গেছেন। আলম ওই গ্রামের আবু জাফরের ছেলে।

শুক্রবার (২২ মে) রাতে করোনা উপসর্গ নিয়ে আলম মারা যান এবং শনিবারে মরদেহ থেকে নমুনা সংগ্রহ করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

ভাদসা ইউপি চেয়ারমান স্বাধীন সরোয়ার স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, পাশ্ববর্তী পালি গ্রামের শরিফুল হাজীর ইটভাটায় শ্রমিকের কাজ করতেন আলম। গত ১৫ দিন থেকে তিনি হাঁপানী, শ্বাসকষ্ট,গলাব্যথা ও জ্বরে ভুগছিলেন।

স্থানীয় দোকান থেকে জ্বরের ঔষধও কিনে খেয়েছিলেন। গত তিনদিন আগে জয়পুরহাটের ছিটহরিপুর গ্রামের পাশ্ববর্তী নওগাঁর ধামুইরহাট উপজেলার একটি ক্লিনিকে গিয়ে পরীক্ষাও করেছিলেন তিনি। সেখানকার চিকিৎসক তাকে এ্যাজমা রোগের চিকিৎসাও দিয়েছিলেন।

জয়পুরহাট সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকতা ডাক্তার তুলসী রায় জানান, খবর পেয়ে স্বাস্থ্য বিভাগের দল গিয়ে মরদেহ ও তার পরিবারের সকলের কাছ থেকে নমুনা সংগ্রহ করেছে।

জয়পুরহাট জেলা সিভিল সার্জন ডাক্তার সেলিম মিয়ার সাথে মোবইল ফোনে বারবার যোগাযোগের পরও তিনি ফোন না ধরলেও অবশেষে শনিবার রাতে তিনি সাংবাদিকদের জানান, বিষয়টি তিনি শুনেছেন।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।