টাইগারদের ১৫০ রানেই থামিয়ে দিল ভারত

প্রকাশিতঃ ৩:৫১ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ১৪ নভেম্বর ১৯

স্পোর্টস ডেস্ক: ভারতের বিপক্ষে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টের প্রথম দিনই ধাক্কা খেল বাংলাদেশ। দিনের শুরুতে ব্যাটিংয়ে নেমে ১৫০ রানে অলআউট হলো টাইগাররা। ইনিংসের ৫৪ ওভারেই বাংলাদেশ হারায় ৭ উইকেট। বৃহস্পতিবার ভারতের ইন্দোরের হলকার স্টেডিয়ামে দুই ম্যাচ টেস্ট সিরিজের প্রথম টেস্টে স্বাগতিকদের মুখোমুখি হয়েছে টাইগাররা।

দিনের শুরুতে টস জিতে বাংলাদেশের পক্ষে ওপেনিংয়ে নামেন ইমরুল কায়েস ও সাদমান ইসলাম। ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারের শেষ বলে দলীয় ১২ ও ব্যক্তিগত ৬ রানের মাথায় উমেশ যাদবের বলে সাজঘরে ফেরেন ওপেনার ইমরুল কায়েস। মাঠে আসেন মুমিনুল হক। এর ঠিক এক ওভার পরে অর্থাৎ সপ্তম ওভারের শেষ ইশান্ত শর্মার বলে ব্যক্তিগত ৬ রানে ফেরেন সাদমান। দলীয় ১২ রানের মাথায়ই ফেরেন দুই ওপেনার। সাদমানের পর চার নাম্বারে মাঠে আসেন মোহাম্মদ মিথুন।

এরপর ইনিংসের ১৮তম ওভারের শেষ বলে দলীয় ৩১ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরেন মোহাম্মদ মিথুন। ব্যক্তিগত ১৩ রানে মোহাম্মদ সামির বলে ফেরেন তিনি। তার পরে মাঠে আসেন মুশফিকুর রহিম। অধিনায়ক মুমিনুর রহমানকে সঙ্গে নিয়ে দলের হাল ধরেন মুশফিক। দুইজন মিলে দলীয় সংগ্রহ নিয়ে যান ১০০ এর কাছাকাছি। তবে এক রান বাকি থাকতেই ঘটে ছন্দপতন। ইনিংসের ৩৮তম ওভারের প্রথম বলে দলীয় ৯৯ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ৩৭ রানে সাজঘরে ফেরেন টাইগার অধিনায়ক।

এরপর মাঠে আসেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। তখনও ক্রিজের আরেক প্রান্ত আঁকড়ে ধরে আছেন মুশফিক। তবে ক্রিজে বেশিক্ষণ টিকতে থাকতে পারেননি মাহমুদুল্লাহ। দলীয় ১১৫ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ১০ রানেই ফেরে তিনি। মাহমুদুল্লাহর পরে মাঠে আসেন লিটন দাস। এরপর মুশফিক ফেরেন ব্যক্তিগত ৪৩ রান করেন। এর পরের বলেই শূন্য হাতে সাজঘরে ফেরেন মুশফিকের পরে মাঠে আসা মেহেদি হাসান।

এরপর লিটন ২১, আবু জায়েদ ৭, ও ইবাদত হোসেন ২ রানে ফেরেন। তাইজুল ১ রানে অপরাজিত থাকেন। শেষ পর্যন্ত ৫৮ ওভার ৩ বলে ১৫০ রানে অলআউট হয় বাংলাদেশে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ