টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ২ রোহিঙ্গা ডাকাত নিহত

প্রকাশিতঃ ৪:৪২ অপরাহ্ণ, শুক্র, ১ মে ২০

সময় জার্নাল ডেস্ক: কক্সবাজারের টেকনাফে র‌্যাবের সঙ্গে রোহিঙ্গা ডাকাত জকির গ্রুপের গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় মারা গেছেন জকির গ্রুপের দুই সদস্য। ডাকাতদের ঢেরা থেকে উদ্ধার হয়েছে ১৫টি আগ্নেয়াস্ত্র, গোলাবারুদ ও দেশীয় ধারালো অস্ত্র।

শুক্রবার ভোররাতে টেকনাফের জাদিমুরা ক্যাম্প-২৬-এর পাহাড়ি এলাকায় র‌্যাব-১৫ একদল সদস্যের সাথে এ গোলাগুলির ঘটনা ঘটে বলে জানিয়েছেন র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী।

নিহতরা হলেন- হাকিম (৩৫) ও রশিদ (৩০)। তারা দু’জনই জকির গ্রুপের সক্রিয় সদস্য।

র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী জানান, ডাকাতদল জাদিমুড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্প-২৬-এর পাহাড়ি এলাকায় জড়ো হয়ে কোথাও হানা দেয়ার অপেক্ষা করছে এমন খবর পেয়ে র‌্যাব-১৫ একদল সদস্য সেখানে অভিযানে যান। র‌্যাব সদস্যদের উপস্থিতি ঠের পেয়ে রোহিঙ্গা ডাকাতদল গুলিবর্ষণ শুরু করে। আত্মরক্ষার্থে র‌্যাবও গুলি চালায়। বেশ কিছুক্ষণ গোলাগুলির পর ওপাশ থেকে গুলি করা থেমে গেলে ঘটনাস্থলে তল্লাশি চালানো হয়। সেখানে দু’জনকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। ঘটনাস্থলে পাওয়া যায় ছোট-বড় ১৫ আগ্নেয়াস্ত্র, দুটি রামদা।

তিনি আরও জানান, গুলিবিদ্ধ দেহগুলো উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

স্থানীয় রোহিঙ্গাদের মাধ্যমে জানা গেছে, নিহতরা রোহিঙ্গা ডাকাত জকির গ্রুপের সদস্য।

গোলাগুলিতে আহত হন র‌্যাবের কয়েকজন সদস্যও। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ব্যারাকে পাঠানো হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য কক্সবাজার সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় পৃথক আইনে মামলা করা হচ্ছে বলে উল্লেখ করেন র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) আবদুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ