ড্যান্স ক্লাবের আড়ালে দেহ ব্যবসা, আটক ৩

প্রকাশিতঃ ৮:৫৩ অপরাহ্ণ, রবি, ৮ নভেম্বর ২০

জয়পুরহাট প্রতিনিধি : জেলায় ডান্সগ্রুপের আড়ালে তরুণীদের ব্ল্যাক মেইল করে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করার অভিযোগে প্রতারক চক্রের ৩ সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)।

শনিবার (৭ নভেম্বর) মধ্যে রাতে শহরের প্রফেসর পাড়া এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়। এসময় ৩ তরুণীকেও উদ্ধার করে র‌্যাব সদস্যরা।

আটককৃতরা হলেন, জয়পুরহাট পৌর শহরের তাঁতি পাড়া মহল্লার মেহেদি হাসানের স্ত্রী মিনু আক্তার (২৪), গুলশান মোড় মহল্লার আব্দুল মজিদের ছেলে সুমন আহম্মেদ (৪২) এবং তার স্ত্রী মৌসুমি আক্তার (২৬)।

র‌্যাব-৫ এর জয়পুরহাট ক্যাম্প অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এম এম মোহাইমেনুর রশিদ জানান, দীর্ঘদিন থেকে সুন্দরী তরুণীদের নিয়ে একটি ড্যান্সগ্রুপ চালিয়ে আসছিলেন সুমন। ড্যান্স গ্রুপের অন্তরালে তরুণীদের বিভিন্ন সময় কৌশলে অশ্লীল ভিডিও ধারণ করে রাখা হতো। পরে ওই তরুণীদের ভয়ভীতি দেখিয়ে দেহ ব্যবসায় বাধ্য করে আসছিলেন সুমনসহ আটকৃকরা। এমন তথ্যর ভিত্তিতে শহরের প্রফেসর পাড়ায় অভিযান চালিয়ে ৩ তরুনীকে উদ্ধার, অশ্লিল ভিডিও ধারনকৃত ৬টি মোবাইল ফোনসহ তাদের আটক করা হয়। রোববার সকালে আটকৃতদের বিরুদ্ধে মামলা করাসহ তাদের জয়পুরহাট সদর থানায় সোপর্দ করা হয়েছে বলেও জানান স্থানীয় র‌্যাব অধিনায়ক।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।