ঢাবি ক্যান্টিনে পচা মাংস: মালিককে খাওয়ালেন শিক্ষার্থীরা

প্রকাশিতঃ ১:৫১ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ৬ ফেব্রুয়ারি ২০

ক্যাম্পাস ডেস্ক: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ক্যান্টিনগুলোতে সরবরাহ করা পচা মাংস, অতিরিক্ত লবণ দেয়া তরকারিসহ অস্বাস্থ্যকর খাবারে অতিষ্ঠ শিক্ষার্থীরা। তারা এসব খাবার ক্যান্টিনের মালিককে জোর করে খাইয়ে দিয়েছেন।

মাংস খেতে গিয়ে পচা-উৎকট গন্ধ পেয়ে সেই মাংস বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি জসীমউদদীন হলের ক্যান্টিন মালিককে খাইয়ে দেন শিক্ষার্থীরা।

হলটির ছাত্র ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সদস্য তানভীর হাসান অন্য শিক্ষার্থীদের সঙ্গে নিয়ে সেই খাবার ক্যান্টিনের মালিককে খাওয়ান।

এ সময় হল ছাত্র সংসদের ভিপি ফরহাদ আলী, ক্যান্টিন দেখভালের দায়িত্বপ্রাপ্ত হলের আবাসিক শিক্ষক মোহাম্মদ জহিরুল ইসলামসহ হলের বেশ কয়েকজন আবাসিক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন।

তানভীর জানান, মঙ্গলবার রাত ১০টার দিকে জসীমউদদীন হলের ক্যান্টিনে খেতে গেলে ‘পচা’ খাবার পান তিনি। আরও কয়েকজন শিক্ষার্থী তাকে একই অভিযোগ করেন। পরে ক্যান্টিন মালিক ডালিম সরকারকে ডেকে এনে সেই খাবার খেতে বাধ্য করেন।

ঘটনার বিস্তারিত তুলে ধরে ডাকসু নেতা তানভীর বলেন, রাতে ক্যান্টিনে খাবার খেতে যাই। গরুর মাংস মুখে দিতেই উৎকট গন্ধ পাই। বমি চলে আসে। ক্যান্টিন মালিক এই পচা মাংসে লবণ বাড়িয়ে রান্না করে সেগুলো শিক্ষার্থীদের খাওয়াচ্ছেন। আমি এর প্রতিবাদ করতে গেলে ক্যান্টিনে উপস্থিত বেশ কয়েকজন শিক্ষার্থীই প্রতিবাদ জানান। তারা আমার কাছে এটিও অভিযোগ করেন যে, ক্যান্টিন মালিক মাঝেমধ্যেই পচা খাবার খাওয়ায়। প্রতিবাদ করেও কোনো সুরাহা হচ্ছে না।

তানভীর জানান, তিনি হল ক্যান্টিনের দায়িত্বে থাকা আবাসিক শিক্ষককে আসার জন্য অনুরোধ করেন। ওই শিক্ষকের উপস্থিতিতেই তানভীর ক্যান্টিন ম্যানেজারকে ওই মাংস খেতে বলেন। তিনি মুখে নিয়ে বমি করে ফেলে দেন। আবাসিক শিক্ষক মুখের কাছে নিয়ে ফেলে দিতে বাধ্য হন। পরে ক্যান্টিন মালিককে ডাকা হয়। ক্যান্টিন মালিক হল সংসদের ভিপিকে সঙ্গে নিয়ে ক্যান্টিনে আসেন। এর পর মালিককে অবশিষ্ট সেই মাংস খেতে বললে তিনি একটু মুখে নিয়েই ফেলে দেন। পরে শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে ক্যান্টিন মালিককে পুরো মাংস খেতে বাধ্য করা হয়।

পরে ক্যান্টিন মালিক শিক্ষার্থীদের কাছে প্রকাশ্যে ক্ষমা চান। এ ধরনের মানহীন পচা খাবার আর দেয়া হবে না বলে প্রতিশ্রুতি দেন।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ