দর পড়েছে হুয়াওয়ে ফোনের

প্রকাশিতঃ ৩:৫৮ অপরাহ্ণ, সোম, ২৭ মে ১৯

প্রযুক্তি ডেস্কঃ হঠাৎই মুখ থুবড়ে পড়েছে চীনা স্মার্টফোন ব্র্যান্ড হুয়াওয়ের পি৩০ প্রোর জনপ্রিয়তা। অথচ বছরের সেরা ফ্ল্যাগশিপের তকমা ছিল এই হ্যান্ডসেটের দখলে।

জানা গেছে, এক হাজার ১৫০ ডলারের এই ফোন এখন ১৩০ ডলারে পাওয়া যাচ্ছে।

ফোর্বস ম্যাগাজিন জানিয়েছে, যুক্তরাষ্ট্রে হুয়াওয়ের ওপর নিষেধাজ্ঞা এবং গুগলের কিছু সেবা হুয়াওয়েতে বন্ধের ঘোষণা আসার পর যুক্তরাজ্যে স্মার্টফোন কেনাবেচার একটি সাইটে এমন দাম চাওয়া হচ্ছে।

সে হিসাবে হুয়াওয়ের এই ফ্ল্যাগশিপ ফোনের দাম প্রায় ৯০ শতাংশ পড়ে গেল।

বছরের শুরুতে টেক প্রিয়দের বেশ নজর কেড়েছিল হুয়াওয়ের এই স্মার্টফোনটি।

এর দারুণ ডিজাইন ভালো রিভিউ পায়। এ ছাড়া এর দীর্ঘমেয়াদি ব্যাটারি ও লেইকা কোয়াড ক্যামেরার শক্তির বিশেষত্বের জন্য সবাই লুফে নিতে চাইছিল সেটটি।

সেই সময় ইন্টারন্যাশনাল ডেটা কর্পোরেশনের একটি প্রতিবেদনে প্রকাশ হয়, ‘বিশ্ববাজারে শীর্ষে থাকা স্যাম সাংকে অচীরেই ধরে ফেলবে হুয়াওয়ে।’

সেখানে আরও জানানো হয়, বছরের পর বছর ধরে ৫০ শতাংশ প্রবৃদ্ধি ধরে রেখেছে হুয়াওয়ে।

আর এরই মধ্যে ট্রাম্প প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞার আরোপ হয় কোম্পানিটির ওপর।

এর পর গুগলের নেয়া এক সিদ্ধান্তের ফলে পশ্চিমে বড় ধরনের ব্যবসায়িক ক্ষতির মুখে পড়তে হয় হুয়াওয়েকে।

এদিকে হুয়াওয়ের সঙ্গে সব চুক্তি, সেবা এবং অবশিষ্ট কার্যক্রম স্থগিত করতে কর্মীদের নির্দেশ দিয়েছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক চিপ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান এআরএম।

জানা গেছে, এমন পরিস্থিতিতে অস্তিত্ব রক্ষার চেষ্টায় ইতিমধ্যে নিজস্ব অ্যাপ স্টোর তৈরির বিষয়ে কাজ করছে হুয়াওয়ে।

এ ছাড়া হুয়াওয়ের আগামীর অপারেটিং সিসটেম, এআরএম চিপ, এসডি-কার্ড এবং ওয়াইফাই লাইসেন্স নিয়েও কথা চলছে।

এসব কার্যক্রম নিয়ে আবার বিশ্ববাজারে ফিরে আসার চেষ্টা করছে হুয়াওয়ে এমনটিই জানিয়েছেন টেক গবেষকরা।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ