দিনাজপুরে ১ শিশুসহ ২ জন কোয়ারেন্টাইনে

প্রকাশিতঃ ৬:২৩ অপরাহ্ণ, শনি, ২৮ মার্চ ২০

মাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর : করোনাভাইরাসের ঝুঁকি এড়াতে জেলার ১৩ উপজেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তির সংখ্যা কমে ২৯০ জনে পৌঁছেছে। ১৫০ জনকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ১২ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে। এছাড়া এক শিশুসহ দুইজনকে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে।

দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুস অফিসিয়াল ফেসবুকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, বুধবার (২৮ মার্চ) পর্যন্ত করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তির সংখ্যা কমে ২৯০ জন হয়েছে। ২৭ মার্চ শুক্রবার রাত ৮টা নতুন করে ১২ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে নেয়া হয়েছে। আর করোনাভাইরাস না পাওয়ায় ইতোমধ্যে ১৫০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

এছাড়া জেলার বিরামপুর উপজেলায় এক শিশুসহ দুইজন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে।

তিনি আরও জানান, বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিদের মধ্যে দিনাজপুর সদর উপজেলায় নতুন একজনসহ ৪৩ জন, বিরলে নতুন একজনসহ ২২ জন, বোচাগঞ্জে ১৩ জন, কাহারোলে ৩৩ জন, বীরগঞ্জে ৩১ জন, খানসামায় নতুন একজনসহ ১০ জন, চিরিরবন্দরে ৪ জন, পার্বতীপুরে ৪০ জন, ফুলবাড়ীতে নতুন ৯ জনসহ ৫৫ জন, বিরামপুরে ১১ জন, নবাবগঞ্জে ৮ জন, হাকিমপুরে নতুন ৯ জন ও ঘোড়াঘাট উপজেলায় ১১ জন।

আর হোম কোয়ারেন্টাইন থেকে অব্যহতি পাওয়া ১৫০ জনের মধ্যে রয়েছে দিনাজপুর সদর উপজেলায় ৭ জন, বিরলে ১১ জন, বোচাগঞ্জে ১০, কাহারোলে ২৩ জন, বীরগঞ্জে ৯ জন, খানসামায় ৬ জন, চিরিরবন্দরে ১৭ জন, পার্বতীপুরে ২৩ জন, ফুলবাড়ীতে ১৯ জন, বিরামপুরে ১২ জন, নবাবগঞ্জে ২জন, হাকিমপুরে ২জন ও ঘোড়াঘাটে ৯ জন।

হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা সবাই ভাল রয়েছে বলে জানানো হয়েছে।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ