দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডে পাশের হার ৮২ দশমিক ৭৩ শতাংশ

প্রকাশিতঃ ৫:৪৩ অপরাহ্ণ, রবি, ৩১ মে ২০

মাহবুবুল হক খান, দিনাজপুর : দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশিত হয়েছে। গড় পাশের হার ৮২ দশমিক ৭৩ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২ হাজার ৮৬ জন। তবে এবারে জিপিএ-৫ প্রাপ্তির সংখ্যা বাড়লেও কমেছে পাশের হার। গতবারে পাশের হার ছিল ৮৪ দশমিক ১০ শতাংশ।

রোববার (৩১ মে) বেলা সাড়ে ১০টার পর অনলাইনে পরীক্ষার ফল ঘোষণা করেন দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক অধ্যাপক মো. তোফাজ্জুর রহমান।

শিক্ষা বোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তোফাজ্জুর রহমান জানান, ২০২০ সালে এই শিক্ষাবোর্ডের অধীনে মাধ্যমিক স্কুল সার্টিফিকেট (এসএসসি) পরীক্ষায় ১ লাখ ৯২ হাজার ৯৭৯ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে ১ লাখ ৯১ হাজার ৮২১ জন পরীক্ষার্থী। এদের মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ১ লাখ ৫৮ হাজার ৬৮৫ পরীক্ষার্থী। গড় পাশের হার ৮২ দশমিক ৭৩ শতাংশ। জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২ হাজার ৮৬ জন। পরীক্ষায় ৩৩ হাজার ১৩৬ জন পরীক্ষার্থী অকৃতকার্য হয়েছে। এছাড়া পরীক্ষায় অনুপস্থিত ছিল ১১৫৮ জন পরীক্ষার্থী।

তিনি জানান, বরাবরের মত এবারেও ছাত্রীদের পাশের হার বেশি। ছাত্রীদের পাশের হার ৮৪ দশমিক ৩২ শতাংশ আর ছাত্রদের পাশের হার ৮১ দশমিক ২২ শতাংশ। জিপিএ-৫ প্রাপ্ত ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা বেড়েছে। এবারে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২ হাজার ৮৬ জন। এদের মধ্যে ছাত্রী ৫৭৬০ জন এবং ছাত্র ৬০২৬ জন।

বিজ্ঞান বিভাগে ৮১ হাজার ৭৯৪ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৭৭ হাজার ৫১২ জন। উত্তীর্ণদের মধ্যে ৪৪ হাজার ১২২ জন ছাত্র ও ৩৩ হাজার ৩৯০ জন ছাত্রী। বিজ্ঞান বিভাগে গড় পাশের হার ৯৪ দশমিক ৭৬ শতাংশ।

মানবিক বিভাগে ১ লাখ ৫ হাজার ৫২৮ জনের মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৭৭ হাজার ৫৪৬ জন। এদের মধ্যে ৩৩ হাজার ৫৯১ জন ছাত্র ও ছাত্রী ৪৩ হাজার ৯৫৫ জন। মানবিকে বিভাগে গড় পাশের হার ৭৩ দশমিক ৪৮ শতাংশ। তবে এবারও বিজ্ঞান ও মানবিক বিভাগে ছাত্রীদের পাশের হার ছাত্রদের তুলনায় বেশী।

ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে ৪ হাজার ৪৯৯ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে উত্তীর্ণ হয়েছে ৩ হাজার ৬২৭ জন। এদের মধ্যে ২ হাজার ৫৬৪ জন ছাত্র ও ছাত্রী ১ হাজার ৬৩ জন। ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে গড় পাশের হার ৮০ দশমিক ৬২ শতাংশ।

এবারে গত বারের চেয়ে জিপিএ-৫ প্রাপ্ত পরীক্ষার্থীর সংখ্যা বেড়েছে। এবারে পেয়েছে ১২ হাজার ৮৬ জন আর গতবার জিপিএ-৫ পেয়েছিল ৯ হাজার ২৩ জন। এবারে বিজ্ঞান বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১১ হাজার ৮৩২ জন। এদের মধ্যে ছাত্র ৬ হাজার ২৫৯ জন ও ছাত্রী ৫ হাজার ৫৭৩ জন। মানবিক বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২৬ জন। এদের মধ্যে ছাত্র মাত্র ৫৫ জন ও ছাত্রী ১৭১ জন। এবং ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগে জিপিএ-৫ পেয়েছে ২৮ জন। এদের মধ্যে ছাত্র মাত্র ১২ জন ও ছাত্রী ১৬ জন।

শিক্ষাবোর্ডের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মো. তোফাজ্জুর রহমান জানান, এ বছর ১১৫৮ জন পরীক্ষার্থী অনুপস্থিত ছিল। এছাড়া ১০৫ জন পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার হয়েছে। এবারে একজনও পাশ করেনি এমন বিদ্যালয়ের সংখ্যা মাত্র একটি যা গতবারও ছিল মাত্র একটি। শতভাগ পাশ করেছে এমন বিদ্যালয়ের সংখ্যা ১২২টি যা গতবারে ছিল ১৩৮টি বলে জানান তিনি।

উল্লেখ্য, এবারে দিনাজপুর বোর্ডে অধীনে রংপুর বিভাগের ৮টি জেলার ২ হাজার ৬৪৬টি বিদ্যালয় হতে ১ লাখ ৯১ হাজার ৮২১ পরীক্ষার্থী ২৭১টি কেন্দ্রের মাধ্যমে এসএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করে। উল্লেখ্য, এটি দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের অধীনে অনুষ্ঠিত এগারতম এসএসসি পরীক্ষা।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।