দিল্লির ঘটনা যেন বাংলাদেশকে স্পর্শ না করে: সাবেক রাষ্ট্রদূত মো. জমির

প্রকাশিতঃ ৬:৪১ অপরাহ্ণ, বুধ, ২৬ ফেব্রুয়ারি ২০

ভারতের দিল্লিতে উগ্রবাদী ও সন্ত্রাসী হিন্দু কর্তৃক মসজিদে আগুন ধরিয়ে দেয়া এবং গণহারে মুসলমানদের ওপর নৃশংস হামলার ঘটনার যেন বাংলাদেশকে স্পর্শ করতে না পারে সে জন্য সরকারকে পরামর্শ দিয়েছেন সাবেক রাষ্ট্রদূত মো. জমির। সময় জার্নালকে তিনি বলেন, এ ধরনের সাম্প্রদায়িক ঘটনা থেকে গুজব সৃষ্টি হয় এবং স্বার্থান্বেষী মহল তাতে ফায়দা লোটার অপচেষ্টা করে।

সাবেক রাষ্ট্রদূত মো. জমির আরো বলেন, সাম্প্রদায়িক ঘটনাটি যদিও ভারতের অভ্যন্তরীন ব্যাপার, তবুও স্বাভাবিকভাবে বাংলাদেশ এতে উদ্বিগ্ন। কারণ ভারতে হিন্দু সন্ত্রাসী কর্তৃক মুসলমানের অত্যাচারের ঘটনা বাংলাদেশসহ বিশ্বের মুসলমানদের ব্যথিত করছে। ভারত সরকারের উচিত অনতিবিলম্বে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে নেয়ার ব্যবস্থা করা। এ জন্য প্রয়োজনে সেনা সেনাবাহিনী নামানোর পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, ভারতীয় মিডিয়া বলছে, মুসলমানদের ওপর হামলা ও নির্যাতনের ঘটনায় ভারতীয় রাজনৈতিক দলগুলো পরস্পরকে দোষারোপ করছে। যেটি সব জায়গাতেই হয়। দিল্লির ক্ষমতাসীন আম-আদমী পার্টি বলছে, এটি আরএস ও বিজেপির কাজ। দিল্লির নির্বাচনে পরাজয়ের কারণে আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটাচ্ছে। অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপি বলছে, তাদের কাঁধে বন্দুক রেখে আম-আদমীর লোকেরাই এটা করছে। ভারতের ঘটনার জেরে বাংলাদেশে যাতে সাম্প্রদায়িক ঘটনার সূত্রপাত না ঘটে, সে ব্যাপারে বাংলাদেশ সরকারকে সজাগ থাকার পরামর্শ দিয়েছেন সাবেক এই রাষ্ট্রদূত।

উল্লেখ্য, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) নিয়ে ভারতের রাজধানী দিল্লিতে গত সোমবার শুরু হওয়া সংঘাত এখনো চলছে। গত মঙ্গলবার সারাদিনই দফায় দফায় সংঘর্ষ চলে। লাঠি-রড নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে দুই পক্ষের লোকজন।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ