দু’মাসের বেতনের টাকায় দেড়’শ পরিবারের পাশে সরকারি কর্মচারী

প্রকাশিতঃ ৩:২৩ অপরাহ্ণ, সোম, ৪ মে ২০

খাদেমুল মোরসালিন শাকীর, নীলফামারী : জেলার কিশোরগঞ্জ উপজেলার রাধারাণী মহিলা কলেজের চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারী ক্ষিতিশ চন্দ্র মোহন্ত দুই মাসের বেতনের টাকা দিয়ে ১৫০ পরিবারকে সহায়তা করলেন। তার বাড়ি সদর উপজেলার খলেয়া গঞ্জিপুর ইউনিয়নের উত্তর লালচাঁদপুর (বিষ্ণু মন্দির) বৈরাগী পাড়ায়।

সোমবার সকালে নিজ বাড়ির সামনে দু’মাসের বেতনের টাকা দিয়ে অসহায় মানুষের মাঝে ৫ কেজি করে চাল তুলে দেন ক্ষিতিশ চন্দ্র মোহন্ত। ইউনিয়ন পরিষদ থেকে যারা ত্রাণ পাননি তারা এ সুবিধা পান।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, খলেয়া ১নং ওয়ার্ডের জাতীয় পার্টির সভাপতি কালীরঞ্জন দাস, সাধারণ সম্পাদক শংকর কুমার রায়, সুরঞ্জন চন্দ্র মোহন্ত, স্বপন কুমার মোহন্ত ও স্থানীয় ক্যাবল নেটওয়ার্কের স্বত্তাধিকারী কালীদাস রায় প্রমূখ।

ক্ষিতিশ চন্দ্র মোহন্ত বলেন, আমি একজন দরিদ্র মানুষ, আমি নিজেও একটি ছোট পদে চাকরি করি। সরকার যখন ভয়াবহ করোনা ভাইরাসের কারণে সারাদেশ লকডাউন করেছে তখন খেঁটে খাওয়া মানুষগুলো বেকার হয়ে খাবারের জন্য নির্বিকার হয়ে আছে। সরকার ঘোষিত ত্রাণ সামগ্রী এখন পর্যন্ত যারা পায়নি আমি তাদেরকে চিহ্নিত করে আমার ২মাসের বেতনের যে টাকা হয় তা দিয়ে ১৫০ জনকে ৫ কেজি করে চাল কিনে দিয়েছি।

সময় জার্নাল/আরইউটি/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ