দুর্নীতির মামলায় নেতানিয়াহুকে আদালতে হাজিরের নির্দেশ

প্রকাশিতঃ ২:১১ অপরাহ্ণ, বৃহঃ, ২১ মে ২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: দুর্নীতির মামলায় ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর অনুপস্থিতিতে বিচার শুরুর অনুমতির আবেদন খারিজ করে তাকে আদালতে হাজিরের নির্দেশ দিয়েছে দেশটির আদালত।

বুধবার আদালতের নির্দেশনায় বলা হয়েছে, অভিযোগ পড়ার সময় অভিযুক্তকে আদালতে হাজির থাকতে হবে আর এই মামলায় নেতানিয়াহুকে বিশেষ সুযোগ দেয়ার কোনো কারণ নেই।

আলজাজিরা জানিয়েছে, আগামী ২৪ মে (রোববার) জেরুজালেমে দুর্নীতির মামলায় ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর বিচার শুরু হচ্ছে।

নেতানিয়াহুর অনুপস্থিতিতে বিচার শুরুর অনুমতি চেয়ে আদালতে আবেদন করেন তার আইনজীবীরা। তবে সেই আবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে আদালত।

নেতানিয়াহুর আইনজীবীরা আদালতে দেয়া যুক্তিতে বলেন, নিজের বিরুদ্ধে গঠন হওয়া অভিযোগগুলো ইতিমধ্যেই জেনে গেছেন নেতানিয়াহু। তার নিরাপত্তার জন্য যত দেহরক্ষী প্রয়োজন হয় তাতে আদালত কক্ষে করোনাভাইরাস ঠেকাতে আরোপ করা বিধিনিষেধ লঙ্ঘন হতে পারে।

তবে আদালত সেই আবেদন প্রত্যাখ্যান করে বলেছে আদালত কক্ষে দেহরক্ষীর সংখ্যা কমিয়েও আনা যেতে পারে এবং অভিযোগ পড়ার সময় নেতানিয়াহুকে অবশ্যই হাজির থাকতে হবে যাতে করে বিচারকেরা তার কাছ থেকেই জানতে পারেন যে তিনি এগুলো পড়েছেন এবং বুঝতে পেরেছেন।

নেতানিয়াহু গত ১১ বছর ধরে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। এ সময় তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির তিনটি মামলা হয়েছে। এ ছাড়া ঘুষ, প্রতারণা এবং বিশ্বাস ভঙ্গের অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। এগুলো নিয়ে নেতানিয়াহুর বিচার চলছে।

করোনাভাইরাসের কারণে দেশটির বিচার বিভাগ ১৫ মার্চ নেতানিয়াহুর মামলার শুনানি ২৪ মে পর্যন্ত স্থগিত করে।

ঘুষ, জালিয়াতি ও বিশ্বাস ভঙ্গের অভিযোগে গত নভেম্বরে আনুষ্ঠানিকভাবে ইসরাইলের অ্যাটর্নি জেনারেল দেশটির প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে তিনটি মামলা করেন। শুরু থেকেই অভিযোগগুলোকে ‘রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত’ অ্যাখ্যা দিয়েছেন নেতানিয়াহু।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।