নদী থেকে কৈখালী বনবিভাগের নৌযান চালকের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিতঃ ১২:১২ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ১৪ জানুয়ারি ২০

নিউজ ডেস্ক: সাতক্ষীরায় সুন্দরবন সংলগ্ন মাদার নদী থেকে বনবিভাগের কৈখালী স্টেশন অফিসের নৌযান চালক নবাব আলী গাজী (৬৫) নামের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

নবাব আলী শ্যামনগর উপজেলার পূর্ব কৈখালী গ্রামের আব্দুল মজিদের ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন ধরে পশ্চিম বনবিভাগের সাতক্ষীরা রেঞ্জের কৈখালী স্টেশনে নৌ-যান চালকের কাজ করছিলেন।

স্থানীয়দের দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সোমবার রাত ১১টার দিকে শ্যামনগর থানা পুলিশ উপজেলার রমজাননগর ইউনিয়নের ভেটখালী এলাকার কোস্টগার্ড অফিসের সম্মুখস্থ পন্টুনে বেঁধে থাকা অবস্থায় লাশটি উদ্ধার করে।

নিহতের ছেলে কাছিকাটা টহল ফাঁড়ির নৌ-যান চালক রফিকুল ইসলাম জানান, গত রবিবার রাত আটটার দিকে তার বাবা নবাব আলীর সঙ্গে মুঠোফোনে তার কথা হয়। পরে রাত নয়টার দিকে তিনি স্টেশন অফিস থেকে বাড়িতে ফিরে ঘুমিয়ে পড়েন। রাত দশটার দিকে তার (নবাব আলী) মুঠোফোনে কল দিয়ে কেউ তাকে বাড়ির পাশের স্টেশনে যেতে বললে নবাব আলী বেরিয়ে যান।

রফিকুল ইসলাম আরও জানায়, তার মা খোদেজা বিবিকে অফিসে যাওয়ার কথা বলে বেরিয়ে যাওয়ায় বনের মধ্যে টহলে যাওয়ার কথা ভেবে সারাদিন তারা নবাব আলীর খোঁজ নেয়নি। কিন্তু বেলা দুইটার দিকে কৈখালী স্টেশন থেকে ডাকতে আসার পর তারা নবাব আলীকে খুঁজতে থাকেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আব্দুল হামিদ লাল্টু জানান, রাতে কোস্টগার্ডের সিসি সাহেব ফোন দিয়ে ডাকার পর তিনি কয়েকজনকে নিয়ে পন্টুনে বেঁধে থাকা অবস্থায় উপুড় হয়ে ডুবে থাকা নবাব আলীর মরদেহ শনাক্ত করেন। পরে বিষয়টি শ্যামনগর থানা পুলিশকে অবহিত করেন।

শ্যামনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নাজমুল হুদা ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ নবাব আলীর মরদেহ উদ্ধার করেছে। ময়নাতদন্তের জন্য লাশ মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।

কৈখালী স্টেশন অফিসার কামরুল ইসলাম স্টেশনে না থাকায় তার সঙ্গে যোগাযোগ করা সম্ভব হয়নি।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ