নারায়ণগঞ্জে কারফিউ চাইলেন মেয়র আইভী

প্রকাশিতঃ ৯:১৭ অপরাহ্ণ, রবি, ৫ এপ্রিল ২০

সময় জার্নাল ডেস্ক : করোনাভাইরাস মোকাবেলায় রাজধানী সংলগ্ন নারায়ণগঞ্জ শহরে কারফিউ জারির দাবি জানিয়েছেন সিটি মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

রোববার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আবুল আমিন এই খবর জানান।

এর আগে নারায়ণগঞ্জ জেলায় নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দুইজনের মৃত্যুর খবর সরকারিভাবে জানানো হয়েছে। চারজন আক্রান্ত হয়েছে বলে শনাক্ত হয়েছে। এছাড়া এরই মধ্যে ভাইরাস সংক্রমণ রোধে জেলার তিন এলাকা লোকডাউন করেছে প্রশাসন।

এ পরিস্থিতিতে শ্রমিক অধ্যুষিত ঘনবসতিপূর্ণ নারায়ণগঞ্জ সিটি এলাকায় ‘জরুরি ভিত্তিতে কারফিউ’ চেয়ে প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে অনুরোধ জানিয়েছেন সিটি মেয়র আইভী।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সারা বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাস সংক্রমণ মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। বাণিজ্যিক নগরী নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন এলাকায় এ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। দিন দিন সংক্রমণ বৃদ্ধি পাচ্ছে। ইতোমধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যুবরণ করায় কয়েকটি এলাকা প্রশাসন লকডাউন করা হয়েছে।

সিটি এলাকায় ইপিজেড, গার্মেন্টস, হোসিয়ারিসহ ভারী শিল্প কল-কারখানার পাশাপাশি চাল, ডাল, আটা, ময়দা, লবণসহ নিত্যপণ্যের পাইকারী বাজার থাকায় এ শহর শ্রমিক অধ্যুষিত বলে উল্লেখ করা হয় বিজ্ঞপ্তিতে।

‘ঘনবসতিপূর্ণ এ নগরীতে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি অত্যাধিক’ উল্লেখ করে আরও বলা হয়-নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী মানুষের জীবন বাঁচাতে ‘জরুরি ভিত্তিতে সিটি এলাকা লকডাউন/কারফিউ জারি করার জন্য’ প্রধানমন্ত্রীসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের প্রতি বিশেষভাবে অনুরোধ জানিয়েছেন।

অন্যথায় এ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন এ সিটি করপোরেশেনের মেয়র আইভী।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক জসিম উদ্দিন বলেন, “করোনাভাইরাস পরিস্থিতি মোকাবেলায় সব ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হবে। প্রয়োজনে প্রশাসন আরও কঠোর হবে।

“এখানে আপস বা ছাড় দেওয়ার কোনো সুযোগ নেই।”

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ