নিখোঁজের পর সিউল মেয়রের লাশ উদ্ধার

প্রকাশিতঃ ১০:৫৯ পূর্বাহ্ণ, শুক্র, ১০ জুলাই ২০

দক্ষিণ কোরিয়ার রাজধানী সিউলের মেয়র পার্ক উন-সুনের লাশ উদ্ধার করেছে দেশটির পুলিশ। এর আগে বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বিকাল ৫টার দিকে মেয়রের নিখোঁজের বিষয়টি পুলিশকে জানান তার মেয়ে।

বিবিসি জানিয়েছে, দক্ষিণ সিউলের মাউন্ট বুগাক এলকায় তার লাশ পাওয়া যায়। সেখানে তার মোবাইলের সিগন্যাল সর্বশেষ শনাক্ত করা হয়। তবে মৃত্যুর কোনো কারণ প্রকাশ করা হয়নি।

খবরে বলা হয়, মেয়র পার্কের বিরুদ্ধে এক নারী কর্মীর যৌন হেনস্তার অভিযোগ দায়ের করার কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তিনি নিখোঁজ হন। এই কারণেই যে তিনি নিখোঁজ হন এটি নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

সিউল মেট্রোপলিটন পুলিশ জানিয়েছে, শহরটির উত্তরাঞ্চলীয় সুংবুক-ডং এলাকার আশপাশে মেয়রের অনুসন্ধান চালান পুলিশ কর্মকর্তারা। মেয়রের ফোন ট্র্যাক করার মাধ্যমে সবশেষ সেখানেই তার অবস্থান শনাক্ত করার পর ওই এলাকার চারপাশে ব্যাপক অভিযান শুরু হয়।

বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় বিকেল সোয়া পাঁচটার দিকে (বাংলাদেশ সময় ২টার পর) মেয়রের মেয়ে তার বাবার নিখোঁজ হওয়ার বিষয়টি পুলিশকে জানান। মেয়র উন-সুন ‘শেষ ইচ্ছার মতো’ একটি বার্তা রেখে ঘর ছেড়েছিলেন বলে জানিয়েছেন তার মেয়ে। তবে বার্তাটিতে কী লেখা ছিল তা জানাননি তিনি।

দক্ষিণ কোরিয়ার রাজনীতিতে পার্ক উন-সুন বেশ প্রভাবশালী ছিলেন। তিনি ২০১১ সাল থেকেই সিউলের মেয়র। ২০১৪ ও ২০১৮ সালে আরও দুই দফায় সিউলের মেয়র নির্বাচিত হন তিনি। ২০২২ সালে দেশটির নির্বাচনে তিনি লিবারেল পার্টির সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট প্রার্থীও ছিলেন।

সাবেক মানবাধিকার আইনজীবী পার্ক উন-সুনকে সংস্কারের প্রতীক হিসেবে বিবেচনা করা হয় দেশটিতে। তাই তার হঠাৎ নিখোঁজ হওয়ার পর থেকেই দেশজুড়ে ব্যাপক শোরগোল শুরু হয়।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।