নড়াইলে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে কিশোরী ধর্ষণ

প্রকাশিতঃ ১২:৫৫ অপরাহ্ণ, মঙ্গল, ৫ মে ২০

নড়াইল সংবাদদাতা: লোহাগড়ায় ১৫ বছরের এক কিশোরী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। একই এলাকার লিটন নামে পূর্ব পরিচিত এক লম্পট বিয়ের প্রলোভনে কিশোরীকে ফুসলিয়ে নিয়ে তার সর্বনাশ করে বলে নির্যাতিতা ও স্বজনদের অভিযোগ।

রোববার রাতের ওই ঘটনায় সোমবার দুপুরে লোহাগড়া থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। নির্যাতিতা ও তার পরিবার এ ঘটনার বিচার দাবি করেছেন। পুলিশ জানায়, কাজে আসা যাওয়ার সুবাদে লোহাগড়া উপজেলার কালনা গ্রামের রাজমিস্ত্রী লিটনের সঙ্গে কয়েক মাস আগে পরিচয় হয় পার্শ্ববর্তী কচুবাড়িয়া গ্রামের ওই কিশোরীর।

পরিচয়ের পর থেকে লিটন নিজের হীন উদ্দেশ্য চরিতার্থ করতে ওই কিশোরীকে প্রেমের জালে ফাঁসানোর ফন্দি আটে। পরিকল্পনা অনুযায়ী সে বিয়ের প্রলোভনে সহজ সরল নাবালিকাকে কথার জালে ফাঁসাতে সক্ষম হয়।

একপর্যায়ে সুযোগ বুঝে গেল রোববার সন্ধ্যার পরে লিটন মেয়েটিকে মোবাইল ফোনে ঢেকে তাদের বাড়ির অদূরে নির্জন স্থানে নিয়ে কিশোরীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে তাকে ধর্ষণ করে ফেলে পালিয়ে যায়। সেখান থেকে বাড়ি ফিরে নির্যাতিতা কিশোরী স্বজনদের ঘটনা জানালে স্বজনরার পুলিশে অভিযোগ দেয়। সোমবার নির্যাতিতার মায়ের লিখিত অভিযোগের প্রেক্ষিতে ধর্ষক লিটনের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরসহ পুলিশ নির্যাতিতার ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য তাকে সদর হাসপাতালে পাঠায়।

গতকাল সোমবার বিকেলে সদর হাসপাতালে নির্যাতিতার ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে আদালত নেয়া হলে আদালত ২২ ধারায় নির্যাতিতার জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করেন।

সময় জার্নাল/ফারনান

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ