ভ্যাকসিন বিজ্ঞানীর প্রত্যাশা
পরবর্তী শীতের আগে জীবন স্বাভাবিক হতে পারে

প্রকাশিতঃ ১:৩৫ অপরাহ্ণ, সোম, ১৬ নভেম্বর ২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : করোনার একটি ভ্যাকসিন তৈরির কাজের সাথে জড়িত একজন বিজ্ঞানী আশা প্রকাশ করেছেন, ভ্যাকসিন ব্যাপকভাবে সরবরাহ করা সম্ভব হলে পরবর্তী শীত নাগাদ জীবন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরতে পারে।

যুক্তরাষ্ট্রের বৃহৎ ঔষধ কোম্পানি ফাইজারের সাথে যৌথভাবে জার্মান বায়োটেক যে ভ্যাকসিনটি তৈরি করছে, তার সহ-প্রতিষ্ঠাতা তুরস্কের ইগুর শাহীন রোববার বৃটিশ টেলিভিশনকে এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, সবকিছু ঠিকঠাক মতো চললে চলতি বছরের শেষে কিংবা আগামী বছরের প্রথম দিকে আমরা ভ্যাকসিন সরবরাহ শুরু করতে পারবো।

শাহীন বলেন, আমাদের লক্ষ্য আগামী বছরের এপ্রিল নাগাদ ভ্যাকসিনের ৩০ কোটি ডোজ সরবরাহ করা। তিনি আশা করেন, গ্রীষ্মে সংক্রমণ কমবে। তবে শরৎ নাগাদ ব্যাপকহারে টিকা গ্রহণ করতে হবে।

শাহীন বলেন, উল্লেখযোগ্য সংখ্যক টিকাদান কোম্পানি সরবরাহ বাড়াতে কাজ করছে। সুতরাং আগামী বছর আমরা একটি স্বাভাবিক শীতকাল পেতে পারি।

শাহীন ও তার স্ত্রী ওজলেম তুরেসি জার্মানের পশ্চিমাঞ্চলীয় নগরী মায়েঞ্জে ২০০৮ সালে বায়োএনটেক প্রতিষ্ঠা করেন। কোম্পানিটি মার্চ মাসে আমেরিকান ঔষধ কোম্পানি ফাইজারের সাথে অংশীদারিত্বের ভিত্তিতে করোনার ভ্যাকসিন তৈরির কাজ শুরু করে।

এদিকে সোমবার কোম্পানিটি করোনা প্রতিরোধে তাদের ভ্যাকসিন ৯০ শতাংশ কার্যকর বলে ঘোষণা করেছে।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।