পলাতক খুনিদের ফিরিয়ে আনা চেষ্টা চলছে: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

প্রকাশিতঃ ১:০২ অপরাহ্ণ, রবি, ৩ নভেম্বর ১৯

নিউজ ডেস্ক: জাতীয় চার নেতার খুনিদের মধ্যে যারা বিদেশে পালিয়ে আছে যেকোনো সময় দেশে আনা হবে বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।

রোববার জেলহত্যা দিবস উপলক্ষে রাজধানীর নাজিমউদ্দিন রোডে পুরাতন ঢাকা কেন্দ্রীয় কারাগারে জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে তিনি একথা জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিদেশে পলাতক খুনিরা আমাদের দেশের আইনের আওতায় নেই। যে দেশে অবস্থান করছে, সে দেশের আইন অনুযায়ী তাদের প্রত্যার্পণ করতে হবে। আসামিদের দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে সেসব দেশের সঙ্গে দরকষাকষি হচ্ছে।

তিনি বলেন, শুধু জেলহত্যার খুনিরা নয়, বঙ্গবন্ধু ও ২১ আগস্টের আসামিরা বিভিন্ন দেশে পালিয়ে রয়েছে। আমরা সবাইকে চিহ্নিত করে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টায় রয়েছি। যেকোনো সময় তাদের ফিরিয়ে আনা হবে।

খুনিদের বিচার হলেও যারা এতে কলকাঠি নেড়েছে, তাদের বিচারের আওতায় আনতে ভুক্তভোগী পরিবারগুলোর দাবির বিষয়ে আসাদুজ্জামান খাঁন বলেন, তারা যে দাবি জানিয়েছে, সেগুলোর আইন অনুযায়ী বিচার হবে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে যে তালিকা এসেছে, সেই অনুযায়ী আমরা কাজ করছি। যে দাবিটি উত্থাপিত হয়েছে, সেটি আমাদের কাছে এলে কাজ শুরু করব।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের বহিষ্কৃত নেতা ইসমাইল চৌধুরী সম্রাট গ্রেফতার হলেও তার সহযোগীদের মাধ্যমে রাজধানীতে চাঁদাবাজি চলছে- এমন অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, এই বিষয়ে বলতে হলে তথ্যভিত্তিক কথা বলতে হবে। শুধু সম্রাট কেন, দোষী সবার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী দিকনির্দেশনা দিয়েছেন।

এর আগে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের নেতারা কারা বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান। এরপর জাতীয় চার নেতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়ে কারাগার কর্তৃপক্ষ আয়োজিত মিলাদ মাহফিলে অংশ নেন।

এর আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের নেতারা কারাগারের ভেতরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে তার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানান। এরপর চার নেতার প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা জানিয়ে কারাগার কর্তৃপক্ষ আয়োজিত এক মিলাদ মাহফিলে অংশ নেন।

উল্লেখ্য, ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুকে সপরিবারে হত্যার ধারাবাহিকতায় ৩ নভেম্বর বঙ্গবন্ধুর রাজনৈতিক সহকমী জাতীয় চার নেতা সৈয়দ নজরুল ইসলাম, তাজউদ্দীন আহমদ, ক্যাপ্টেন এম মনসুর আলী ও এএইচএম কামরুজ্জামানকে জেলখানার অভ্যন্তরে গুলি করে ও বেয়োনেট দিয়ে খুঁচিয়ে খুঁচিয়ে নির্মমভাবে হত্যা করে ঘাতকচক্র।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ