পাকিস্তানের গোলাবর্ষণে ভারতীয় চার সৈন্যসহ নিহত ৭

প্রকাশিতঃ ৬:৫০ অপরাহ্ণ, শুক্র, ১৩ নভেম্বর ২০

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : কাশ্মীরে অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করে পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর সদস্যদের ছোড়া গোলায় ভারতীয় সেনাবাহিনীর অন্তত চার সদস্য ও তিনজন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছেন। গোলার আঘাতে আরও বেশ কয়েকজন ভারতীয় সৈন্য ও বেসামরিক নাগরিক আহত হয়েছেন।

শুক্রবার অধিকৃত জম্মু-কাশ্মীরের গুরেজ থেকে উরি সেক্টরের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার (এলএসি) একাধিক এলাকায় পাকিস্তানের গোলাবর্ষণে এই হতাহতের ঘটনা ঘটেছে।

ভারতীয় কর্মকর্তারা বলেছেন, পাকিস্তানি সামরিক বাহিনীর ভারী গোলাবর্ষণে উরির নাম্বালা সেক্টরে ভারতীয় তিন সেনা জওয়ান নিহত হয়েছেন। পাকিস্তানি সৈন্যরা এই এলাকায় মর্টার এবং অন্যান্য অস্ত্র ব্যবহার করেছে।

তারা বলেছেন, উরির হাজি পীর সেক্টর এলাকায় পাকি গোলায় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের একজন সদস্য নিহত ও আরও একজন আহত হয়েছেন।

ওই কর্মকর্তারা বলেছেন, জম্মু-কাশ্মীরের বারমুল্লা জেলার উরির কামালকোট সেক্টরে আরও দুই বেসামরিক নিহত হয়েছেন। এছাড়া হাজি পীর এলাকার বালকোটে এক নারী মারা গেছেন। গোলার আঘাতে আহত একজন বেসামরিক নাগরিকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

একইদিনে জম্মু-কাশ্মীরের পুঞ্চ জেলার সাওজিয়ান এলাকায় অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করে পাকিস্তানের সামরিক বাহিনীর সদস্যদের ছোড়া গোলায় আরও সাত ভারতীয় বেসামরিক নাগরিক আহত হয়েছেন।

ভারতীয় সেনা সূত্রগুলো বলছে, পাকিস্তানের গোলাবর্ষণের কড়া জবাব দিয়েছে ভারতীয় সামরিক বাহিনী। পাকিস্তানি পক্ষেও বেশ কয়েকজন হতাহত হয়েছে বলে দাবি করেছে এই সূত্র।

নয়াদিল্লির কর্মকর্তারা বলেছেন, পাকিস্তানের গোলায় বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। তারা বলেছেন, উরির বিভিন্ন এলাকা ছাড়াও বান্দিপোড়া জেলার গুরেজ সেক্টরের ইজমার্গ থেকে কুপওয়ারা জেলার কিরান সেক্টর পর্যন্ত অস্ত্রবিরতি লঙ্ঘন করেছে পাকিস্তানি সৈন্যরা।

ভারতীয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র বলেছেন, কিরান সেক্টরের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় (এলওসি) অবৈধ অনুপ্রবেশের চেষ্টা প্রতিরোধ করেছে ভারতীয় সামরিক বাহিনী। অনুপ্রবেশের চেষ্টাকারীরা ভারতীয় সৈন্যদের লক্ষ্য করে মর্টার এবং অন্যান্য অস্ত্র নিক্ষেপ করে। এর যথাযথ জবাব দেয়া হয়েছে।

সূত্র : এনডিটিভি।

সময় জার্নাল/

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।