ফাহিমের ঘাতক সন্দেহে ব্যক্তিগত সহকারী গ্রেফতার

প্রকাশিতঃ ৯:২৭ পূর্বাহ্ণ, শনি, ১৮ জুলাই ২০

রাইড শেয়ারিং পাঠাওয়ের সহপ্রতিষ্ঠাতা ফাহিম সালেহকে হত্যায় জড়িত সন্দেহে আটক ব্যক্তিকে গ্রেফতার দেখিয়েছে নিউ ইয়র্ক পুলিশ। গ্রেফতার ব্যক্তি ফাহিমের ব্যক্তিগত সহকারী। স্থানীয় সময় শুক্রবার ভোরে তাঁকে গ্রেফতার করা হয়। তাঁর বিরুদ্ধে ফাহিম হত্যাকাণ্ডের অভিযোগ আনা হচ্ছে।

দুজন পুলিশ কর্মকর্তার বরাতে এই তথ্য দিয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমস। গ্রেপ্তার হওয়া ব্যক্তির নাম টাইরিস ডেভোন হাসপিল। পত্রিকাটি জানিয়েছে, ২১ বছর বয়সী টাইরিস ডেভন হসপিল ফাহিমের কাছ থেকে মোটা অংকের ডলার চুরি করেছিলেন। বিষয়টি ফাহিম জেনে যাওয়ায় তাকে হত্যা করেন তার ব্যক্তিগত সহকারী। গ্রেপ্তার টাইরিস ডেভন হসপিলের বিরুদ্ধে শুক্রবারই আদালতে অনুষ্ঠানিক অভিযোগ আনা হতে পারে।

গোয়েন্দা সূত্র জানিয়েছে, ফাহিম সালেহর বোন যখন ওই অ্যাপার্টমেন্টে ঢুকছিলেন, হত্যাকারী তখন লাশ টুকরা করছিলেন। অ্যাপার্টমেন্টের লবিতে পৌঁছালে হত্যাকারী বিষয়টি টের পান, তখন অ্যাপার্টমেন্টের পেছনের দরজা ও সিঁড়ি দিয়ে হত্যাকারী বেরিয়ে যান।

এর আগে নিউ ইয়র্ক পুলিশ বিভাগের বরাত দিয়ে নিউ ইয়র্কের ‘আই উইটনেস নিউজ চ্যানেল সেভেন জানিয়েছে, বড় ধরনের কোনো ব্যবসায়িক লেনদেনের জের ধরেই ফাহিম সালেহকে হত্যা করা হয়েছে বলে আভাস পাওয়া গেছে। খুনি খুবই পেশাদার। এ জন্য পাগলের ভান করছেন। এর ফলে ওই ব্যক্তিকে মনস্তাত্ত্বিক বিশ্লেষণের জন্য হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।