ফেসবুক ট্রান্সপারেন্সি প্রতিবেদন
ফেসবুকের ১৯৫ অ্যাকাউন্টের তথ্য চেয়েছে সরকার

প্রকাশিতঃ ১:২৭ অপরাহ্ণ, রবি, ২৬ মে ১৯

নিউজ ডেস্ক : বাংলাদেশ সরকারের অনুরোধে সাড়া দিয়ে আরও ব্যবহারকারীর তথ্য দিয়েছে ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ।

গত বছরের দ্বিতীয়ার্ধে (জুলাই-ডিসেম্বর) মোট ১৪৯টি অনুরোধের মাধ্যমে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে মোট ১৯৫টি ফেইসবুক অ্যাকাউন্ট বা ব্যবহারকারীর তথ্য চাওয়া হয়েছিল।

এর মধ্যে ৪৪ শতাংশ তথ্য ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ সরকারকে দিয়েছে বলে তাদের সর্বশেষ ‘ট্রান্সপারেন্সি রিপোর্ট’ এ বলা হয়েছে।

এর মধ্যে আইনি প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে ১৯টি অ্যাকাউন্টের তথ্য চেয়েছিল সরকার। আর ১৩০টি অ্যাকাউন্টের বিষয়ে ছিল ‘জরুরি’ অনুরোধ।

ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, আইনি প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে পাওয়া অনুরোধের ১৬ শতাংশ তথ্য তারা সরকারকে সরবরাহ করেছে। আর সরকারের জরুরি অনুরোধের ক্ষেত্রে ৪৮ শতাংশ তথ্য দিয়েছে।

বরাবরের মতই ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ তাদের এই প্রতিবেদনে কোন দেশের সরকার কতগুলো কী ধরনের তথ্য চেয়েছে সেই সংখ্যাই কেবল প্রকাশ করেছে। যেসব অ্যাকাউন্টের তথ্য চাওয়া হয়েছে বা যেসব অ্যাকাউন্টের তথ্য দেওয়া হয়েছে সেগুলো প্রকাশ করা হয়নি।

কখনও কখনও আইনি প্রক্রিয়া শুরুর জন্য কোনো অ্যাকাউন্টের তথ্য সংরক্ষণের অনুরোধেও সাড়া দেয় ফেইসবুক কর্তৃপক্ষ।

ফেসবুক জানিয়েছে, বাংলাদেশ থেকে এবার একটি কনটেন্ট বন্ধ করার অনুরোধও পেয়েছে তারা। অবৈধ ছদ্মবেশের অভিযোগে ওই ভিডিও নিয়ে অভিযোগ ওঠায় তা বাংলাদেশে দেখানো নিষিদ্ধ করা হয়।

তবে সংশ্লিষ্ট ব্যবহারকারীর নাম বা কনটেন্ট সম্পর্কে কোনো তথ্য ফেইসবুক তার প্রতিবেদনে প্রকাশ করে না।

এবারের প্রতিবেদনে ইন্টারনেট সেবা বিঘ্ন হওয়ার বিষয়টিও তুলে ধরেছে ফেসবুক। বাংলাদেশে জুলাই থেকে ডিসেম্বর মাসের মধ্যে ২২ ঘণ্টা ফেসবুক বন্ধ করা হয়েছিল।

বিশ্বে এবার ৯টি দেশে মোট ৫৬ বার ফেসবুক বন্ধ করার ঘটনা ঘটেছে। তাছাড়া চলতি বছরের প্রথমভাগে ৮টি দেশে ৪৮ বার ইন্টারনেট বন্ধের ঘটনা ঘটেছিল।

সজা/এমএম

লকডাউন পরিস্থিতিতে পাঠকদের অবস্থা, সমস্যায় পড়া মানুষদের কথা সরকার, প্রশাসন এবং সকল খবরাখবর আমাদের সব পাঠকের সামনে তুলে ধরতে আমরা মনোনীত লেখাগুলি প্রকাশ করছি। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিও আমাদের পাঠাতে ক্লিক করুন

স্থান, তারিখ ও কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই লিখে পাঠাবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।

ফেসবুকের মাধ্যমে মতামত জানানঃ